অগাস্ট 22, 2020

প্রথমে গত সপ্তাহের ঘটনাবলির পর্যালোচনা :

  • ইউরো/মার্কিন ডলার। গত অনুমানে আমরা বলেছি যে চ্যানেল 1.1700-1.1910-র একটি বা অন্য অভিমুখে স্পষ্ট ব্রেকডাউনই একমাত্র ভর্তুকি ক্রিয়াকলাপের প্রধান প্রবণতা সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা দিতে পারে। এই পরিধির ভেতরেই এই জোড়াটি চার সপ্তাহ ধরে চলাফেরা করছে। কিন্তু ব্রেকডাউন কখনো ঘটেনি : যাইহোক এটা হল আগস্ট, ছুটির দিন, এবং কোনো অতিরিক্ত ঘটনারই বাজারকে উর্ধ্বগামীর করার সামর্থ্য, এখনও দেখা যায়নি। পরিস্থিতি হল বিনিয়োগকারীরা এমনকি প্রতিটি ছোট্ট ব্রেকডাউন ও ঘনিষ্ঠ অবস্থান সামান্য লাভে কিনতে তৈরি। এর ফলে, 1.1965-র মধ্য দিয়ে যাওয়াটা বুলকে সাফল্য আনতে পারেনি, এবং জোড়াটি ফিরেছে সাইডলাইন 1.1700-1.1910-এ সপ্তাহ শেষ করেছে এর কেন্দ্রীয় লাইনের বেশি দূরে নয়, 1.1795 অঞ্চলে।
  • জিবিপি/মার্কিন ডলার।   ব্রিটিশ কারেন্সিও গিয়েছে সাইডে ট্রেন্ডে, যেখানে এটি রয়েছে টানা তিন সপ্তাহ। গত পাঁচ দিনের পর্বে মূল ব্যবধান ছিল বুলিশ সেন্টিমেন্টের খানিকটা প্রাধান্য, যার কারণ পাউন্ডের শক্তিবৃদ্ধি নয়, বরং ডলারের সাধারণ দুর্বলতা। এবং পিভট পয়েন্ট হিসেবে 1.3075 দিগন্ত যদি দেখা গেছে আগস্টের প্রথমার্ধে, এটা এখন ঘুরে দাঁড়িয়েছে সাপোর্ট লেভেলে। এখান থেকে ঠেলে, জিবিপি/মার্কিন ডলার জোড়াকে দুবার 1.3265 উচ্চতায় তুলেছে বুল, এবং দুবার এটি ফিরেছে সাপোর্টে, যা 1.3090 স্তরের কাছে, এটাই চূড়ান্ত বিন্দু।
  • মার্কিন ডলার/জেপিওয়াই। 106.00-108.10 অঞ্চল হল সেই পরিধি যেখানে এই জোড়াটি গত 20 সপ্তাহে 75 শতাংশ সময় বাণিজ্য করেছে। এবং সব বিশেষজ্ঞ নিশ্চিত ছিলেন যে এটা গত সপ্তাহে এই সীমার মধ্যেই থাকবে, এ ছাড়া, এটা এর ঊর্ধ্বসীমায় উঠতে পারে। যদিও, ডলারের প্রত্যাশিত শক্তিবৃদ্ধি ঘটেনি, এবং যেসব অসিলেটর সতর্ক করেছিলেন দীর্ঘ অবস্থান খোলার বিরুদ্ধে, সংকেত দিয়েছেন অতিরিক্ত ক্রয়ের, সেটাই সঠিক হয়েছে। এর ফলে, জোড়াটি 106.00 সাপোর্টের মধ্য দিয়ে ভেঙেছে, 100 পয়েন্ট নীচে স্থানীয় নিম্নে এসেছিল। তারপর, ঘুরে দাঁড়ানোর পর, এটি 106.00 স্তর অতিক্রম করতে পারেনি, যা এখন হয়ে উঠেছে রেজিস্ট্যান্স, এবং ট্রেডিং সেশন শেষ করেছে 105.80-তে।
  • ক্রিপ্টোকারেন্সি।  গত পাঁচ মাস ধরে ক্রিপ্টোকারেন্সি 4000 ডলার থেকে 12000 ডলারে গেছে। বহু বিশেষজ্ঞের বিশ্বাস যে ডলারের বিশাল পরিমাণের মূল কারণ হল কোভিড-১৯ অতিমারীর জন্য সৃষ্ট সংকট অতিক্রম করতে ইউএস ফেডারেল রিজার্ভ বাজারে ছুড়েছে ডলার। তাদের পোর্টফোলিও বিভাজন দ্বারা, বিনিয়োগকারীরা এই টাকার সামান্য বিনিয়োগ করেছে বাস্তব সোনা এবং ডিজিটাল সোনায়, যা সাম্প্রতিক মাসগুলিতে দৃঢ় বিকাশ দেখিয়েছে। এর আরেকটি অংশ হল স্টক মার্কেট। কিন্তু যদি বিটকয়েন 200 শতাংশ বৃদ্ধি দেখিয়েছে, সোনার মূল্য বেড়েছে 30 শতাংশের সামান্য বেশি এবং S&P500 ইনডেক্স 50 শতাংশ সীমা খুব কমই অতিক্রম করেছে।
    মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে, বিশ্লেষণী পোর্টাল ট্রেডিংভিউ অনুযায়ী, মূল ক্রিপ্টোকারেন্সি জনপ্রিয়তায় হারিয়ে দিয়েছে প্রথম সারির মার্কিন কোম্পানিগুলোকে, শুধু হেরেছে টেসলা ইলোন মাস্কের কাছে। এক্ষেত্রে তৃতীয় স্থান বোয়িং-এর।
    আরেকটি প্রখ্যাত বিশ্লেষক যার ডাকনাম প্ল্যান বি, তাদের সমীক্ষার তথ্যও কৌতূহলকর, এটায় অংশগ্রহণ করেছিলেন 22.6 হাজার টুইটার ইউজার। যখন জিজ্ঞেস করা হয়েছে, ‘আপনারা কী মূল্যে বিটকয়েন থেকে নিষ্কৃতি পেতে চান যদি এটা আগামী কয়েক বছরে দ্রুত বৃদ্ধি না হয়?’ উত্তরদাতাদের 5.8 শতাংশ বলেছেন 1000 ডলারের কম দামে, ওই একই পরিমাণ সম্পর্কে – 1000-3000 ডলার। যাদের সমীক্ষা করা হয়েছে তার মধ্যে 16.2 শতাংশ এই কয়েন বিক্রি করতে পারে মোটামুটি 6000 ডলারে। সমীক্ষায় অংশগ্রহণকারী বাকি 72 শতাংশ বলেছেন, বিটকয়েনের মূল্য যদি শূন্য-তেও এসে পৌঁছয় তবু তাঁরা এটা ধরে রাখবেন।
    এদিকে, প্রধান ক্রিপ্টোকারেন্সির কোট ‘শূন্য’ স্তর তেকে অনেক দূরে। বিটকয়েন ঘোরাফেরা করছে ডলারের বিপরীত স্কেলে – যখন ইউএসডি (ডিএক্সওয়াই) ইনডেক্স নেমে গিয়েছিল, বিটিসি উঠেছিল পারস্পরিকভাবে। এবং আমাদের অধিকাংশ বিশেষজ্ঞের অনুমান ছিল, গত সপ্তাহের প্রথমে, ডিএক্সওয়াই 93.1 থেকে 92.16-এ নামবে, বিটিসি/মার্কিন ডলার জোড়া উপরে উঠবে, 12000 ডলার রেজিস্ট্যান্স অতিক্রম করবে এবং পৌঁছবে 12470 ডলার উচ্চতায়। ডলার এরপর ফিরেছে 93 স্তরের উপরে এবং বিটকয়েন নেমেছে, বেশ কিছুটা, 11600 সাপোর্ট স্তরে।
    ক্রিপ্টো মার্কেটের মোট ক্যাপিটালাইজেশন সপ্তাহ জুড়ে সামান্য পরিবর্তন হয়েছে, 370 বিলিয়ন ডলার থেকে নেমেছে 366 বিলিয়ন ডলারে। বিটকয়েন ফিয়ার অ্যান্ড গ্রিড ইনডেক্স চার সপ্তাহ ধরে স্কেলের চতুর্থ কোয়ার্টারে আছে এবং এমনকি সামান্য বিকশিত হয়েছে – 78 থেকে 81 পয়ে্টে। এটা বোঝায় যে জোড়াটির 12470 ডলার থেকে 11600 ডলারে পতন বাজারকে খুশি করেনি এবং এটা অতিরিক্ত ক্রীতই থেকে গেছে।
    এবং অল্টকয়েন্ট সম্পর্কে কিছু কথা। ইদানীং, প্রচুর মনোযোগ রয়েছে – এবং সঠিকভাবেই – ইথেরিয়ামের প্রতি। ব্লক বিশ্লেষক ল্যারি সেরম্যাকের বিশ্বাস যে এই প্রবণতা ধারাবাহিক থাকলে, ইথেরিয়াম হতে পারে কর্পোরেট পরিবেশে সবচেয়ে প্রার্থিত সম্পদ। ‘মোনেরো, বিটকয়েন ক্যাশ এবং বিএসভি মাইনারের কমিশন রেভিনিউ উপেক্ষণীয় রয়েছে। আমার মতে, এই খেলায় দ্রুতই দুটি প্রধান খেলোয়াড় হবে, বিটকয়েন ও ইথেরিয়াম।’ তাঁর মতে, তাদের ইন্ডিকেটরদের মধ্যে ব্যবধান অবশ্যম্ভাবী হয়ে উঠবে যে অল্টকয়েন সরকারিভাবে লিডার হিসেবে স্বীকৃতি পাবে।
    যদিও, এই মূহ্রতে এটা ইথেরিয়াম ছিল না, যা ছিল বাজারের সবচেয়ে লাভজনক দখল, ছিল yearn. finance (YFI)। এটাই সেই কয়েন যা এক মাসে দেখিয়েছে চব্বিশ গুণ বৃ্দ্ধি এবং বিটকয়েনকেও অতিক্রম করেছে মূল্যে, পৌঁছেছে 15400 ডলার উচ্চতায়। যাইহোক, YFI ডেভেলপাররা স্থির করেছেন প্রধান ক্রিপ্টোকারেন্সির পথ অনুসরণ করবেন, এর সার্কুলেশন 30000 কয়েনে সীমিত করে, যার ফলে মূল্য একধাপে অনেকটা বৃদ্ধি হবে। এটা সত্যি নয় যে YFI মূল্য এই স্তরে ধরে রাখবে অথবা আরও এগোবে। এটা সম্ভব যে আমরা অতি দ্রুতই দেখব সমান দ্রুত পতন। উপরে উল্লেখিত তথ্য শুধু বোঝায় যে, প্রথম দশটি কয়েনের সঙ্গে, ইনস্ট্রুমেন্টও প্রকাশিত হয়েছে, প্রকাশিত এবং প্রকাশ পাবে ক্রিপ্টো মার্কেটে যা স্বল্পস্থায়ী অনুমানের কারণে লাভের শত শত ও হাজার হাজার শতাংশ আনতে পারে।

 

আগামী সপ্তাহের অনুমানের ক্ষেত্রে, বেশকিছু সংখ্যক বিশেষজ্ঞের মতামতের সংক্ষেপের পাশাপাশি টেকনিক্যাল ও গ্রাফিক্যাল বিশ্লেষণের বিভিন্ন পদ্ধতির ভিত্তিতে আমরা বলতে পারি :

  • ইউরো/মার্কিন ডলার। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গত সপ্তাহে বেকার ভাতার প্রাথমিক দাবির সংখ্যা ফের 1 মিলিয়ন অতিক্রম করেছে। নিউইয়র্ক ও ফিলাডেলফিয়ার নির্মাণ ক্রিয়াকলাপের পরিসংখ্যানএ বেশ দুঃখের ছিল। এই প্রেক্ষাপটের বিপরীতে, বুল একটা প্রচেষ্টা করেছিল বহু মাসের উচ্চতায় নবীকরণ করতে এবং জোড়াটিকে 1.2000-এর উপরে তুলতে। প্রচেষ্টাটি ব্যর্থতায় পর্যবসিত হয়, জোড়াটি 1.1700-1.1910 চ্যানেলে ফিরে আসে, এবং বাজারের জন্য প্রধান বেঞ্চমার্কে আরেকটি সম্ভাবনা রয়েছে, অতিমারি কোভিড-19-এর শরৎকালীন সফর।
    প্রথমে, ইউরোপে অতিমারি পরিস্থিতি উন্নত হওয়ায় বিনিয়োগকারীরা আশ্বস্ত হয়েছিলেন যে মার্কিন অর্থনীতির চেয়ে ইউরোজোন অর্থনীতির দ্রুত পুনরুদ্ধার ঘটবে। কিন্তু পরিস্থিতি প্রতিদিন আরও খারাপ হচ্ছে। জার্মানিতে, কোভিড-19 সংক্রমিতের হার মে মাসের চেয়ে বেশি, ফ্রান্সে, এক সপ্তাহে সংক্রমিতের সংখ্যা 50 শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে, স্পেনে প্রতিদিন 4800 কেস রেকর্ড হয়েছে, যা, 1 মিলিয়ন মানুষ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের চেয়ে মাত্র 25 শতাংশ কম। সেজন্য, এটা খুবই সম্ভব যে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নে কোয়ারান্টাইন পন্থা ফের দৃঢ় হবে, যা অর্থনীতিকে আরেকটা ধাক্কা দেবে, ইউসিবি এর কোয়ান্টিটিভ ইজিং (কিউই) কর্মসূচিতে প্রসারে জোর দেবে বাধ্য হয়ে। যা, ইউরো মার্কিন/ডলার জোড়াকে নীচে ঠেলবে।
    অন্যদিকে, ডলার, মার্কিন অর্থনীতি পুনরুদ্ধারের গতি সম্পর্কে সন্দেহ ছাড়া, ধারাবাহিকভাবে চাপে থাকছে ফেড থেকে অর্থ জোগানের বিকাশ দ্বারা, জাতীয় ঋণের বিকাশ দ্বারা, সরকারি বন্ডের লাভের পতন দ্বারা, চীনের সঙ্গে সংঘর্ষের টাগ-অব-ওয়ার দ্বারা এবং আসন্ন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের অনিশ্চয়তা দ্বারা। এর ফলে ইউএসডি (ডিএক্সওয়াই) সূচক, যা 6টি প্রধান কারেন্সিতে ডলারের অনুপাত দেখায়, মধ্য-মার্চের (104 পয়েন্ট) উচ্চতা থেকে পড়েছে মে 2018-র নিম্নে, প্রায় 92-93 পয়েন্টে।
    আজ, অধিকাংশ বিশ্লেষকের অগ্রাধিকার হল ডলারের দিকে। এঁদের 60 শতাংশের বিশ্বাস যে ইউরো/মার্কিন ডলার জোড়া 1.1700-র সাপোর্ট অতিক্রম করতে সক্ষম এবং আরও অন্তত 100 পয়েন্ট নীচে পড়বে। বাকি 40 শতাংশের মতে, জোড়াটি 1.1700-1.1910 ট্রেডিং রেঞ্জে থাকবে, যাতে D1-এ গ্রাফিক্যাল অ্যানালিসিস সম্মত।
    H4-এ ইন্ডিকেটররা, গত সপ্তাহের দ্বিতীয়ার্ধের প্রবণতায় কাজ করছেন, যার স্বাভাবিক রং লাল। কিন্তু D1-এ রয়েছে পূর্ণ রং বিভ্রান্তি, যা সাইডওয়ে মুভমেন্টের ভবিষ্যদ্বাণী নিশ্চিত করে।
    এবং এখন তাদের জন্য ইতিবাচক তথ্য, যারা মাঝারি মেয়াদে আছে, ডলারের ওপরে ইউরোর জয়ে বাজি ধরছে। যদি আপনি অপশন মার্কেটের দিকে তাকান, এটা ইউরো/মার্কিন ডলার জোড়ার 1.2200-1.2500 স্তরের বিকাশ বাতিল করেনি। যদিও এটা মনে রাখা আবশ্যক যে কোভিড-19 নিশ্চিতভাবেই সবকিছুকে এই শরতে জায়গায় রাখবে। এবং অন্যতম একটি নির্ধারক উপাদান এখানে হতে পারে এই অতিমারির বিরুদ্ধে একটি ভ্যাক্সিন এবং বিভিন্ন দেশে টিকাকরণের গতি।

  • জিবিপি/মার্কিন ডলার। ‘যেমন ইউরো তেমনই পাউন্ড’ – টানা তিন সপ্তাহ ধরে এটাই জিবিপি/মার্কিন ডলার জোড়ার অনুমান বলে শোনা যাচ্ছে। কেননা ইউরো/মার্কিন ডলার সম্পর্কে 60 শতাংশ বিশেষজ্ঞ এই জোড়ার পতনের পক্ষে। তাঁদের সমর্থন করেছে ৭৫ শতাংশ অসিলেটর, 80 শতাংশ ইন্ডিকেটর এবং H4-এ গ্রাফিক্যাল অ্যানালিসিস। নিকটতম শক্তিশালী সাপোর্ট 1.3000-তে। যদি এটা টপকায়, বিয়ার চেষ্টা করবে জোড়াটিকে 1.2665-1.2765-তে নিয়ে আসতে।
    কিন্তু D1-এ এখনও সামান্য সুবিধা রয়েছে ‘সবুজ’-এর ইন্ডিকেটরদের মধ্যে। এই সঙ্গে, জোড়াটি সম্পর্কে সংকেত হল অতিরিক্ত বিক্রীত যার সংকেত দিয়েছে H4-এ 25 শতাংশ অসিলেটর। 40 শতাংশ বিশ্লেষকের মতে, দুটি সাইড চ্যানেল জোড়াটির জন্য থাকতে পারে। প্রথমটি, সংকীর্ণ - 1.3075-1.3185, এবং দ্বিতীয়টি, বিস্তৃততর যদি গতি বৃদ্ধি হয় - 1.3000-1.3265। বুলের লক্ষ্য হল 2019-এর উচ্চতা 1.3515-তে আপডেট করা, যা আসন্ন দিনগুলিতে অর্জন করা খুব কঠিন।
  • মার্কিন ডলার/জেপিওয়াই। 50 শতাংশ বিশেষজ্ঞের বিশ্বাস যে জোড়াটি ফের চেষ্টা করবে 105.00 অঞ্চলের সাপোর্টের শক্তির স্বাদ নিতে এবং 31 জুলাই পৌঁছেছিল 104.18 নিম্নে। এই পরিস্থিতি সমর্থন করেছিলেন D1-এ 60 শতাংশ অসিলেটর এবং 100 শতাংশ ট্রেন্ড ইন্ডিকেটর। উভয় সময়সীমার বাকি ইন্ডিকেটরদের রং ছিল নিরপেক্ষ ধূসর। 15 শতাংশ বিশ্লেষকও নিরপেক্ষ অবস্থান গ্রহণ করেছিলেন। বাকি 35 শতাংশ বিশেষজ্ঞ, বলেছিলেন যে জোড়াটি ফিরবে ট্রেডিং রেঞ্জ 106.00-108.10-এ।
  • ক্রিপ্টোকারেন্সি। বরাবরের মতো, নিউজ ফিড পূর্ণ আশাবাদী ক্রিপ্টো-গুরু মন্তব্যে। মর্গ্যান ক্রিক ইনভেস্টমেন্ট কোম্পানির সিইও অ্যান্থনি পম্পলিয়ানো বলেছেন, ‘আমি মনে করি 2029-এর মধ্যে ক্যাপিটালাইজেশনে সোনাকে অতিক্রম করবে ক্রিপ্টোকারেন্সি। তখন অধিকাংশ আর্থিক সংস্থা ক্রিপ্টোকারেন্সি সম্পর্কে ভীত হওয়া বন্ধ করবে এবং এতে বিশাল পরিমাণ লগ্নি শুরু করবে। এবছর ডলার এবং অন্যান্য কারেন্সি দুর্বলতা দেখিয়েছে ভূরাজনৈতিক ওঠানামা এবং অতিমারিতে। বিটকয়েন শুধু ঠেকাতে পেরেছে, এবং সম্ভাব্যতাও বৃদ্ধি করেছে।’
    ক্যাপিটাল ফার্ম মর্গ্যান ক্রিক ডিজিটালের সহ-প্রতিষ্ঠাতা জেসন উইলিয়ামসও আত্মবিশ্বাসী যে কিংবদন্তি বিনিয়োগকারী এবং ক্রিপ্টোকারেন্সির অ্যাডভার্সারি ওয়ারেন বুফেও দেখবেন তাঁর হোল্ডিং কোম্পানি বার্কশায়ার হাথঅ্যাওয়ে-র পোর্টফোলিওতে বিটকয়েন ইনভেস্টমেন্ট। এবং এটা ঘটতে পারে তাঁকে অবহিত না করেই। ‘এঁরা হলেন তরুণ ম্যানেজার এবং বিশ্লেষক যাঁরা সোনা বাণিজ্য ও বিটিসি বাণিজ্যকে ঠেলছেন। তিনি এমনকি জানেনও না এটা কী ঘটছে,’ ব্যাখ্যা দিয়েছেন উইলিয়ামস।
    পরের গ্রীষ্মে বিটকয়েনের মূল্য পৌঁছবে 100000 ডলারে, সঠিকভাবে 16 আগস্ট 2021-এ। একজন বিশ্লেষকের এই ভবিষ্যদ্বাণী প্রকাশিত হয়েছে সিউডোনিম বিট হ্যারিংটনের অধীনে, জনপ্রিয় স্টক-টু-ফ্লো (S2F) মডেলের ওপর ভিত্তি করে যা সোনা বাজারে ব্যবহৃত হয়। তিনি যোগ করেছেন এই মূল্য তাঁর কাছে বহুদিন খুবই উচ্চ ছিল, কিন্তু বলেছেন, বিটকয়েন সবসময় গিয়েছিল রূঢ় মেজাজের বিপরীতে।
    বিশ্লেষক তথা আন্তেপ্রেনিউয়র মার্ক ভান ডের চেস ব্যাখ্যা করেছেন কেন এই ভবিষ্যদ্বাণী সত্যি হবে। ‘অনেকই ভাবেন এটা অসম্ভব,’ তিনি বলেছেন, ‘কিন্তু আমি এক বছরের কম সময়ে 1000 শতাংশ বৃদ্ধি দেখছি বিটিসি ইতিহাসে (2013 ও 2017) অন্তত দুবার। হাভিঙের পর S2F খুব ভালো জায়গায় রয়েছে। যদি লাভের ভীতি থাকে, সবকিছুই সম্ভব।’
    - গ্যালাক্সি ডিজিটাল হোল্ডিঙের প্রধান মাইক নোভোগ্রাটজ ফের একবার বলেছেন যে এবছর শেষ হওয়ার আগে বিটকয়েনের মূল্য অন্তত 20 হাজার ডলারে বৃদ্ধি পাওয়া উচিত। এবং অ্যানালিস্ট প্ল্যান বি, যারা প্রথম বিটকয়েনে প্রথম S2F আবেদন করেছে, একটি চার্ট উপস্থাপন করেছে যেখানে হয়তো এই ক্রিপ্টোকারেন্সি থাকবে 2017 সালের পর এই প্রথম, পরের এক বা দুসপ্তাহে পৌঁছবে 14000 ডলারে। এটা আগ্রহের বিষয় যে এরকম আশাবাদী মন্তব্য সত্ত্বেও অধিকাংশ বিশেষজ্ঞ তাকিয়ে আছেন বিটিসি বেশ শান্ত থাকবে বলে। তাঁরা বিটকয়েনকে বাদ দেননি, ফিয়াট কারেন্সির বিকল্প হিসেবে, অতিমারির দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রেক্ষিতে নতুন বৃদ্ধি হবে। যদি, অবশ্যই, এই পতন ঘটে। কিন্তু এখন পর্যন্ত 70 শতাংশ বিশ্লেষকের আশা যে শরতের প্রথমার্ধে বিটিসি মার্কিন ডলার জোড়া যাবে পিভট পয়েন্ট 11000 ডলারের সঙ্গে এক-বারের নির্গমন সহ 9500 ডলারে, দক্ষিণে এবং 13000 ডলারে উত্তরে। এবং মাত্র 30 শতাংশ বিশেষজ্ঞের বিশ্বাস যে আগামী সপ্তাহগুলিতে এই জোড়াটি সক্ষম হবে দৃঢ়ভাবে 12000 ডলারের ওপরে পা রাখার।

 

নর্ডএফএক্স অ্যানালিটিক্যাল গ্রুপ

 

বিজ্ঞপ্তি : এসব তথ্য আর্থিক বাজারে কাজের জন্য বিনিয়োগ বা পরামর্শ হিসেবে কোনো সুপারিশ নয় : এগুলি একমাত্র তথ্যমূলক উদ্দেশ্যে। আর্থিক বাজারে ট্রেডিং খুবই ঝুঁকিপূর্ণ এবং এর ফলে ডিপোজিটকৃত ফান্ডের পরিপূর্ণ ক্ষতি হতে পারে।


« বাজার বিশ্লেষণ ও সংবাদ
প্রশিক্ষণ
গ্রহণ করুন
মার্কেটে নতুন? ব্যবহার করুন “শুরু করা যাক” বিভাগটি।
প্রশিক্ষণ শুরু করুন
আমাদের অনুসরণ করুন (সামাজিক নেটওয়ার্কগুলিতে)