অক্টোবর 5, 2019

প্রথমে, গত সপ্তাহের ঘটনাগুলোর একটা পর্যালোচনা:

  • EUR/USD। বেশিরভাগ বিশেষজ্ঞ (55%) এই জুটির 1.1000-র জোন অবধি একটা সংশোধন দেখবেন বলে আশা করেছিলেন। এই পরিস্থিতিটিকে D1 এবং W1-এর উপর 15% অসিটেলর সমর্থন করে, এর মাত্রাতিরিক্ত বিক্রির স্পষ্ট সংকেত দিয়ে। এই পূর্বাভাসটি 100% ফলে যাবে বলে ধরে নেওয়া যেতে পারে যেহেতু 3রা সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার EUR-র রেট 1.0999 USD-র স্তরে উঠে গিয়েছিল। গ্রাফিক্স সহযোগে করা এই বিশ্লেষণও সত্যিই ছিল যে, 1.1000-এর স্তরে পৌঁছানোর আগে এই জুটিতে পতন দেখা যেতে পারে, যা এই জুটি দেখিয়েছিল সপ্তাহের একেবারে গোড়ার দিকেই।
    ইউরোপীয় মুদ্রায় বৃদ্ধিকে অবলম্বন দিয়েছিল USA থেকে আসা দুর্বল ম্যাক্রো পরিসংখ্যানগুলি, যার কারণ ছিল প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের শুরু করা বাণিজ্যযুদ্ধের সঙ্গে যুক্ত একাধিক বিষয়। এইভাবে, পরিষেবা ক্ষেত্রে (সার্ভিস সেক্টরে) ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ডের ISM সূচক এর পতন 56.4 থেকে 52.6-এ দেখিয়েছিল। 3রা অক্টোবর এটি প্রকাশিত হওয়ার পর, বাজার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শ্রমবাজারের সংক্রান্ত ঘোষণাগুলির প্রতি দৃষ্টি আকর্ষিত করেছিল, যা প্রথাগতভাবে মাসের প্রথম শুক্রবার, 4ঠা অক্টোবরের উপর আলোকপাত হতে দেখেছিল। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কৃষি ক্ষেত্রের (খামার-বহির্ভুত বেতনভুক কর্মচারিদের তালিকা বা পে-রোল) বাইরে তৈরি হওয়া নতুন কর্মসংস্থানের সংখ্যায় 20% পতন ঘটে, যা থেকেও মন্দার দিকে এগিয়ে যাবার সংকেত মেলে।
    ISM এবং NFP-র মতো সূচকগুলিই সূদের হার পরিবর্তনের জন্য US ফেডেরাল রিজার্ভের দ্বারা নেওয়া পদক্ষেপগুলিকে নির্ধারিত করে। অতএব, সপ্তাহের কাজের দিনগুলির শেষে দেওয়া জেরোম পাওয়েলের ভাষণই ছিল সেই প্রধান ঘটনা, যা থেকে বিনিয়োগকারীরা পরের মাসগুলিতে ফেডেরাল রিজার্ভের পরিকল্পনাগুলির ব্যাপারে জানতে পারবে বলে আশা করেছিল।
    পাওয়েল হলেন সেই ব্যক্তি যিনি অনেক কথা বলা এবং নির্দিষ্ট করে কোন কিছু না বলার ক্ষমতা রাখে বলে খ্যাত। এবারেও তা-ই ঘটেছিল। ফলত, এই জুটি একাধিক হালকা লাফ দেবার পর, 1.0980-র আশেপাশে গিয়ে স্থির হয়ে যায়;
  • GBP/USD। ব্রিটিশ দ্বীপপুঞ্জে, অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহটা বিস্ময়করভাবে শান্ত ছিল। Brexit-কে ঘিরে অস্বাভাবিক কোন কিছুই ঘটেনি। অতএব, 3রা অক্টোবর, শুক্রবার, এই জুটি সেই জোনে গিয়ে শেষ করে যেখানে এটা সাত দিনে আগে থাকছিল। বেশিরভাগ সময়ে এটা সাইড চ্যানেল 1.2275-1.2350-র সারিতে চলে গেছিল, যদিও বুল এবং বিয়ার দুই-ই এর বাইরে বেরিয়ে যাবার একাধিক প্রয়াস করেছিল। তাই, স্থানীয় নিম্ন স্তরটি 1.2205-এ, উচ্চ স্তরটি 1.2415-এ এবং বিনিময় হারের শ্রেণির ওঠা-নামা 210 পয়েন্টে স্থির হয়ে দাঁড়িয়েছিল;
  • USD/JPY। ইয়েনের ক্ষেত্রে, বিনিয়োগকারীরা মার্কিন-চীন বাণিজ্যযুদ্ধের অগ্রগতির জন্য অপেক্ষা করে থাকবে বলে আশা করা হয়েছিল। আমেরিকান বন্ডগুলি থেকে আয়ে পতন ইয়েনকে ঠেলে তুলতে পারত। ফলস্বরূপ, ওয়াশিংটন এবং বেইজিংয়ের মধ্যেকার সমঝোতায় চারিপাশে ছড়িয়ে থাকা অনিশ্চয়তার মেঘ কাটেনি এবং 10-বছর মেয়াদি মার্কিন বন্ডগুলি থেকে আয় 12% পড়ে যায়। এই বিষয়গুলিকে এবং সেই সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে আসা দুর্বল ম্যাক্রোইকোনমি পরিসংখ্যানগুলিকে ধন্যবাদ দিতে হয় ইয়েনের উত্থানের জন্য, যা বৃহস্পতিবার তার এক মাসের আগের অবস্থান 106.50-এর অঞ্চলে পৌঁছে যায়। জাপানি মুদ্রা দ্বারা নির্ধারিত সপ্তাহের অন্তিম বিন্দু ছিল 106.85;
  • ক্রিপ্টোকারেন্সি। ক্রিপ্টোকারেন্সির “ফিয়ার অ্যান্ড গ্রিড ইন্ডেক্স” “চরম ভীতি”-র লাল অঞ্চল থেকে “সাধারণ ভীতি”-র কমলা অঞ্চলে উঠে আসে। বিটকেয়েনের আরও পতন ঘটার ভয় এখনও যায়নি। বাজার সবেই শান্ত হয়েছে এবং Bakkt ক্রিপ্টো ফিউচার কেনাবেচার অসফল শুরুর পর এবং 24শে সেপ্টেম্বরের ব্যাপারে আসন্ন ভীতির কারণে কিছুটা বোধগম্য জায়গায় এসেছে। কারবারি ও বিনিয়োগকারীরা একটু বিরতি নিয়েছিল, যা BTC/USD চার্ট থেকেই স্পষ্ট। এই জুটির সর্বোচ্চ অস্থিরতা গত সপ্তাহে 30শে সেপ্টেম্বর - 01 অক্টোবর ঘটে, এবং যার পরিমাণ ছিল 9%। বাকি সময়ের জন্য, এই জুটি আরও সংকীর্ণ সাইড চ্যানেলে $8.190 বরাবর এগিয়েছিল, 5% অতিক্রম না করে।
    প্রধান ক্রিপ্টোকারেন্সিকে অনুসরণ করে, প্রধান প্রধান অল্টকয়েনগুলি, ইথিরিয়াম (ETH/USD), লিটকয়েন (LTC/USD), রিপল (XRP/USD), ইত্যাদির মধ্যেও সাইড চ্যানেলে চলার প্রবণতা দেখা গিয়েছিল। ক্রিপ্টোকারেন্সি বাজারের মোট মূলধন প্রাপ্তি 2019-এর মে মাসের মাঝামাঝি জায়গায় যা ছিল সেখানে ফিরে গেছিল এবং তার পরিমাণ মাত্র $223 বিলিয়ন।

 

আগামি সপ্তাহের পূর্বাভাসের ক্ষেত্রে, একাধিক বিশ্লেষকদের মতামতগুলোকে, ও সেই সঙ্গে প্রযুক্তিগত ও গ্রাফিক্সভিত্তিক বিশ্লেষণের বহুবিধ পদ্ধতির ভিত্তিতে করা পূর্বাভাসগুলোকে একত্রিত করে, আমরা নিম্নোক্ত কথাগুলো বলতে পারি:

  • EUR/USD। আগামি সপ্তাহে, আমরা বেশ অনেক সংখ্যক ঘটনার জন্য অপেক্ষা করে আছি, যার মধ্যে সপ্তাহের প্রথমার্ধে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফেডেরাল রিজার্ভের প্রধান জে. পাওয়েলে অসংখ্য ভাষণও রয়েছে। তবে, তার মধ্যে নিঃসন্দেহে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ঘটনাটা হবে আগামি 9ই অক্টোবরে ফেডেরাল গভর্নিং কাউন্সিলের সভার কার্যবিবরণী বা মিনিটস এবং 10ই অক্টোবর ECB-তে কর্মরত তাদের সহকর্মীদের বৈঠকের রিপোর্ট। এই দুটি নথিই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এবং EU-এর অদূর ভবিষ্যতের মুদ্রা ও আর্থিক নীতিগুলির উপর আলোকপাত করবে।
    এই মুহূর্তে, বিশেষজ্ঞদের মতামতগুলি নিম্নরূপে বিভক্ত। তাদের মধ্যে 60%-র মত, যা D1-এর উপর গ্রাফিক্স সহযোগে করা বিশ্লেষণ দ্বারা সমর্থিত, এই জুটির পতনের এবং তার 01 অক্টোবরের নিম্ন স্তর 1.0880-তে পৌঁছানোর চেষ্টা করার পক্ষে। বিশ্লেষকদের বাকি 40%, H4-এর উপর গ্রাফিক্স সহযোগে করা বিশ্লেষণের সঙ্গে সম্পূর্ণ সহমত পোষণ করে, বিপরীত দৃষ্টিভঙ্গি রাখে। তাদের বিশ্বাস, ইউরোপের মুদ্রার মধ্যে বৃদ্ধির সম্ভাবনা এখনও মরে যায়নি এবং এই জুটি 1.1100-র জোনে উঠে আসতে সক্ষম হবে।
    আর পরিশেষে, সূচকগুলি। H4-এর উপর অসিলেটর এবং ট্রেন্ড ইন্ডিকেটর দুটোই সবুজ রংয়ে রাঙানো, D1-এর উপর অর্ধেকের বেশি ইতিমধ্যেই রং বদলে লাল হয়ে গেছে, এবং W1-এর উপর লাল রংয়েরই আধিপত্য দেখা যাচ্ছে। একই সঙ্গে, H4 ও D1-এর উপরের অসিলেটরগুলির প্রায় 15% ইতিমধ্যেই অতিমাত্রায় ক্রয়ের ইঙ্গিত দিচ্ছে;
  • GBP/USD। 08ই অক্টোবর, মঙ্গলবার, ব্যাংক অব ইংল্যান্ডের প্রধান মার্ক কার্নের বক্তব্য রাখার কথা। তবে, এই মুহূর্তে তিনি নন, বরং UK-তে খবর তৈরির কেন্দ্রবিন্দু হিসেবে কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।  আর তিনি যা বলেন, এবং তার থেকে বেশি যা করেন, তা বিনিয়োগকারীদের অনেক বেশি উদ্দীপিত করে (মিঃ কার্নে যেন অপরাধ না নেন)। কিন্তু মিঃ জনসন কী বলবেন বা করবেন তা এখনও কারো কাছে স্পষ্ট নয় (হয়ত তার নিজের কাছেও নয়)। ব্রিটেনের EU থেকে বেরিয়ে যেতে আর মাত্র তিন সপ্তাহ বাকি, এবং জনসন সম্ভবত ব্রাসেলের সঙ্গে একটি চুক্তির শর্তে সম্মতি দেবে যা তার দেশের জন্য সুবিধাজনক। তাই, হয় চুক্তিসহ বা চুক্তিহীন Brexit, নতুবা... আরও একবার সময় বৃদ্ধি।
    যদিও কোন কোন সময় অলৌকিক ঘটনাও ঘটে বৈ কী... কিন্তু, যেমনটি সমীক্ষাতে দেখানো হয়েছে, বিশ্লেষকদের 65%-ই, যেমন গ্রাফিক্স সহযোগে করা বিশ্লেষণগুলি, সেগুলিতে বিশ্বাস করে না।    অতএব, তারা পাউন্ডের 3রা সেপ্টেম্বরের নিম্ন স্তর 1.1960-কে সংশোধিত করার চেষ্টায় আরও পতনের আশংকা করছে। নিকটবর্তী অবলম্বনগুলি হল 1.2200 এবং 1.2070 স্তরগুলি।
    শুধুমাত্র 35% বিশেষজ্ঞই বরিস জনসনের উপর ভরসা রাখে এবং সেরাটা আসবে বলে প্রত্যাশা করে। তারা পাউন্ডের শক্তিশালী হওয়া এবং এই জুটির 1.2525 উচ্চতায় উঠে আসার জন্য অপেক্ষা করে আছে।
    সূচকগুলির মধ্যে, এই পরিস্থিতিটি ব্রিটিশ পার্লামেন্টের পরিস্থিতির অনুরূপ; লাল, সবুজ ও ধূসর রংয়ের একটি পূর্ণাঙ্গ মিশ্রণ, সেই সঙ্গে বিভিন্ন সময়সীমার মধ্যে এই জুটি মাত্রাতিরিক্ত কেনা বা বেচা হচ্ছে এ ব্যাপারে মতানৈক্য। তাই, এই মুহূর্তে বাজার সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে আপনাদের সূচকগুলির সাহায্যের উপর ভরসা করা উচিৎ হবে না।

  • USD/JPY। গ্রাফিক্স সহযোগে করা বিশ্লেষণ এবং বিশেষজ্ঞদের 65% ইয়েনের উন্নতি ও এই জুটির পতনের ব্যাপারে বিশ্বাসী।  অধিকন্তু, এটি একটি সাপ্তাহিক পূর্বাভাস নয়, বরং এটি 2019-এর শেষ অবধি একটি পূর্বাভাস। H4 ও D1-এর উপর প্রবণতা সূচকগুলির 100%-ই, সেই সঙ্গে W1-এর উপরের 75%-ও, এর সঙ্গে একমত। কিন্তু অসিলেটরগুলির মধ্যে, পরিস্থিতিটা আলাদা: তাদের মধ্যে H4-এর উপর 75%, D1-এর 60% এবং W1-এর 25% দক্ষিণমুখী গতির পক্ষে। এই বারগুলির লক্ষ্যমাত্রাগুলি হল 106.50, 105.70, 105.00 এবং 104.45। বুল-গুলির লক্ষ্যমাত্রাগুলি হল 107.55, 108.50, 109.00;
  • ক্রিপ্টোকারেন্সি। ডিজিটাল মার্কেটের অনুরাগীরা এখনও বিনিয়োগকারীদের গগনচুম্বী মুনাফার প্রতিশ্রুতি দিয়ে মোহিত করে রেখেছে। তাই, বিখ্যাত অ্যান্টিভাইরাস সফ্টওয়্যার নির্মাতা জন ম্যাকঅ্যাফি বিটকয়েনের দাম 2020-তে $1 মিলিয়ন ডলারে পৌঁছাবে বলে দাবি করছেন। তিনি তার পূর্বাভাসকে সীমিত সংখ্যক বিটকয়েন দিয়ে ব্যাখ্যা করেছেন, যার মধ্যে 85% ইতিমধ্যেই তুলে নেওয়া হয়ে গেছে। আরেকটি "পরিমিত" পূর্বাভাস পাওয়া যায় জার্মান বেয়ারিশ ল্যান্ডেশব্যাংক (BayernLB )-র বিশ্লেষকদের থেকে। তাদের মতে, পরের বছর মুনাফা উত্তোলনকে পরিকল্পিতভাবে অর্ধেক করে দেওয়ার বিষয়টি BTC-র দামকে $90,000-এ বাড়িয়ে দিতে পারে, যা এর বর্তমান দাম $8,200-র সাপেক্ষে 1000% মুনাফা তৈরি করবে।
    তবে, আশাবাদীদের সাথে সাথে, সংশয়বাদীদের কথাও কানে ভেসে আসছে, যাদের সংখ্যাটা ক্রমশই বেড়ে চলেছে। 2017-র পর থেকে যে দুটো বছর অতিক্রান্ত হয়েছে তাতে ক্রিপ্টোকারেন্সিগুলি শুধু প্রচলিত মুদ্রাগুলিকে স্থানচ্যুত করতে ব্যর্থই হয়নি, বরং তারা কোনভাবেই আর্থিক ব্যবস্থার গুরুত্বপূর্ণ অংশ হয়ে উঠতেও পারেনি। সেগুলি বড় আকারে প্রদানের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহৃত হতেও শুরু করেনি। অধিকন্তু, সরকারি নিয়ন্ত্রণ-মুষ্টিতে পড়ে গিয়ে, সেগুলি সরকার-স্বতন্ত্র আর্থিক বাজার হিসেবে তাদের ধারণাকেও খুইয়েছে।
    বর্তমানে, বিশ্লেষকদের মাত্র 25%-ই বিশ্বাস করে যে, আগামি দিনগুলিতে বিটকয়েন $8,500-8,600-র জোন পার করতে সক্ষম হবে। বেশিরভাগই এর পার্শ্ববর্তী গতির ব্যাপারে বলেন যেখানে এর নিম্নমুখী গতিই প্রাধান্য পাবে যা এই জুটিকে $7,500-7,700-এ নামিয়ে আনতে পারে।

 

রোমান বুটকো, NordFX

 

দ্রষ্টব্য: এই বিষয়বস্তুটিকে বিনিয়োগের সুপারিশ অথবা আর্থিক বাজারগুলিতে কাজ করার দিকনির্দেশ হিসেবে বিবেচনা করা উচিৎ হবে না: এগুলির উদ্দেশ্য শুধুমাত্র তথ্য সরবরাহ করা। আর্থিক বাজারগুলিতে কেনা-বেচা করা ঝুঁকিপূর্ণ কাজ এবং তা লগ্নীকৃত অর্থ হারানোর কারণ হতে পারে।


« বাজার বিশ্লেষণ ও সংবাদ
প্রশিক্ষণ
গ্রহণ করুন
মার্কেটে নতুন? ব্যবহার করুন “শুরু করা যাক” বিভাগটি।
প্রশিক্ষণ শুরু করুন
আমাদের অনুসরণ করুন (সামাজিক নেটওয়ার্কগুলিতে)