অগাস্ট 24, 2019

প্রথমে, গত সপ্তাহের ঘটনাগুলোর একটা পর্যালোচনা:

  • EUR/USD। জ্যাকসন হোল অ্যানুয়াল ইকোনমিক সিম্পোজিয়াম-এর মূল উদ্দ্যেশ্য হল US-এর আর্থিক নীতি কোন দিকে যাবে সে ব্যাপারে বিনিয়োগকারীদের একটা ধারণা দেওয়া।  এই জন্যই এই অনুষ্ঠানে ফেডেরাল ব্যাংকের চেয়ারম্যান জেরোম পাওয়েলের বক্তব্যের দিকে সবাই তায়িকেছিল।
    অন্য দিকে, সেই দিনগুলিতে যখন অ্যালান গ্রিনস্প্যান ফেডেরাল রিজার্ভের প্রধান ছিলেন, আরেকটি পরম্পরা উঠে আসে: প্রশ্নের উত্তর দেবার সময় যত পারো ধোঁয়াশা তৈরি করো, যাতে কেউই তা থেকে কোন সুনির্দিষ্ট প্রতিশ্রুতিবদ্ধ না হতে পারে।
    গত 23শে আগস্ট, শুক্রবার এই একই জিনিস জ্যাকসন হোল-এ পাওয়েল করলেন। তিনি, এই ব্যাখ্যা করার মধ্যে দিয়ে যে, সুনির্দিষ্ট উত্তর হিসেবে আসতে পারে এমন কোন অতীত ঘটনা নেই এই, ভবিষ্যতে ফেডেরাল রেট সম্পর্কে কোন স্পষ্ট ইঙ্গিত দিলেন না। কিন্তু তিনি বললেন যে, অর্থিক বৃদ্ধিতে মন্দা দেখা দিলে ফেডেরাল রিজার্ভ আরও বেশি ইনসেন্টিভ দিতে তৈরি।
    US প্রেসিডেন্ট যে বাণিজ্য-যুদ্ধ শুরু করেছে তা যে আমেরিকার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের জন্য যথেষ্টই মাথাব্যথার কারণ হতে চলেছে সেই ইঙ্গিত ছাড়া পাওয়েল এই কথা বলতেই পারতেন না।
    বাণিজ্য-যুদ্ধ নিয়ে কথা। EU-এর অভ্যন্তরে, ট্রাম্পের নিয়ে আসা শুল্কগুলি প্রতিরোধে একটা প্রতি-আক্রমণ দানা বেঁধেছে।  173 পাতার একটি পূর্ণাঙ্গ বিবরণে প্রধান লক্ষ্য হিসেবে একটি প্রতি-আক্রমণমূলক আঘাতের পরিকল্পনার কথা বলা হয়েছে, যা Apple, Amazon, Facebook, Google-এর মতো আমেরিকার উচ্চ-প্রযুক্তি ক্ষেত্রের মহিরুহ প্রতিষ্ঠানগুলিই বেছে নিয়েছে। এছাড়াও প্রতি-আক্রমণের মধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পণ্যগুলির উপর একতরফা শুল্ক চাপানোর বিষয়ও অন্তর্ভুক্ত হতে পারে। সমান্তরালভাবে, USA ও চীনের বাণিজ্য প্রতিষ্ঠানগুলির সঙ্গে প্রতিযোগিতায় সমতা আনার উদ্দেশ্যে ইউরোপের কোম্পানিগুলিতে €100 বিলিয়ন বিনিয়োগের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।
    পাওয়েলের প্রসঙ্গে ফিরে আসা যাক, তার ভাষার অস্পষ্টতা সত্ত্বেও, সেই সঙ্গে ফেডেরাল রিজার্ভের অন্য সদস্যদের মধ্যে মতপার্থক্য থাকা সত্ত্বেও, বাজারে অংশগ্রহণকারী বহু সত্তাই 2019 শেষ হবার আগে এখনও বেস রেট আরও এক বা দু’বার (অথবা এমনকি তিন বার) কমতে পারে বলে প্রত্যাশা করছেন। অধিকন্তু, পরবর্তী রেট কম করার ঘোষণা আগামি 18ই সেপ্টেম্বর করা হতে পারে।
    স্বাভাবিকভাবেই, বাজারের এই মনোভাব দরগুলিকে প্রভাবিত করতে বাধ্য ছিল, এবং শুক্রবার সন্ধ্যায় এই জুটি 1.1150-র খুব কাছাকাছি চলে গেছিল;
  • GBP/USD। ফেডেরাল রিজার্ভের প্রধান ছাড়াও 23শে আগস্ট, শুক্রবার, ব্যাংক অব ইংল্যান্ডের প্রধান মার্ক কার্নেও বক্তব্য রাখেন। তবে, জার্মান চ্যান্সেলার অ্যাঞ্জেলা মার্কেলের বক্তব্যে বাজারের অনেকটা ভাল প্রতিচ্ছবি উঠে এসেছিল যা তিনি তার আগের দিন বলেছিলেন যে, EU এবং গ্রেট ব্রিটেন আগামি 31শে অক্টোবরের মধ্যে Brexit-এর ব্যাপারে একটি চুক্তিতে আসতে পারে। নিশ্চিতভাবেই, এটি একটি অভিপ্রায় মাত্র, কিন্তু তা পাউন্ডকে যথেষ্ট সাহায্য করে: এই বক্তব্যকে সাধুবাদ, যার জন্য ব্রিটিশ মুদ্রা তিন সপ্তাহের শীর্ষ উচ্চতায় পৌঁছোয়, গত 22শে আগস্ট, বৃহস্পতিবার 1.2272-এ উঠে। তারপর আবার একটা পতন দেখা গেছিল, কিন্তু ফেডেরাল রিজার্ভের প্রধানের রাখা বক্তব্যের পর, আবার ঊর্ধ্বগতি বজায় থেকেছিল, সপ্তাহের শেষে দরের স্তরকে যা 1.2285-এ তুলে দেয়;
  • USD/JPY। এতে কোন সন্দেহই নেই যে, বাজারের উন্নতি সম্পর্কে বিনিয়োগকারীদের উদ্বেগ থেকেই যাবে। এই পরিপ্রেক্ষিতে এটি খুবই স্বাভাবিক যে, জাপানি মুদ্রা ইয়েন, চতুর্দিকে বাণিজ্য ও আর্থিক যুদ্ধগুলির মধ্যে একটি নিরাপদ আশ্রয়ের ভূমিকা পালনের মধ্যে দিয়ে, G10-এর সেরা মুদ্রা হিসেবে প্রতিপন্ন হয়েছে, শুধু আগস্ট মাসেই নয়, বরং 2019-এর শেষ হয়ে যাওয়া সবকটি মাস জুড়ে। একই সঙ্গে, বিশেষজ্ঞগণ এই পরামর্শ দিয়েছিলেন যে, গত সপ্তাহে এই জুটি একটি বিরতি নেবে এবং সাইড চ্যানেল 105.00-107.00-এর স্তরে চলে যাবে, H4-এর উপর গ্রাফিক্স সহযোগে করা বিশ্লেষণ দ্বারা সমর্থিত ছিল। তা গত শুক্রবারের রাত অবধি সেখানেই ছিল। অধিকন্তু, এই করিডোর প্রত্যাশার চেয়েও সংকীর্ণ ছিল: মাত্র 50 পয়েন্ট 106.20 এবং 106.70-র হরাইজন দ্বারা বাঁধা ছিল।
    গত শুক্রবার, 23শে আগস্ট তারিখে পাওয়েলের বক্তব্য এই জুটিকে সোজা নিচে নামিয়ে দেয়, তবে, তা 105.40-এ পাঁচ দিনের মেয়াদ পুরো করে, 105.00-র স্তরে নামতে পারেনি।
  • ক্রিপ্টোকারেন্সি। আমরা আমাদের আগের পূর্বাভাসে লিখেছিলাম যে, বিটকয়েনের ভয় এবং গ্রিড ইন্ডেক্স “ভয়” সংকেতে রয়েছে। আর এই ভয়ই অনিশ্চয়তায় ক্রমাগত পতন নিয়ে আসে (আবারও, গত সপ্তাহের চার্টের উপরের ত্রিকোণ পতাকাটাকে মনে রাখবেন, যার প্রান্তগুলি $10,400-10,500-র অঞ্চলে মিলিত হয়েছে)।
    পূর্বাভাসটি একেবারেই সঠিক হিসেবে প্রতিপন্ন হয়, এবং গোটা সাত দিনের সময়কালে BTC/USD জুটি $9,785-10,980-র সীমারেখার বাইরে যায়নি, যা $10,385-র স্তরে স্থিতিশীলতার ইঙ্গিত দেয়। শীর্ষস্থানীয় বিকল্প মুদ্রাগুলিও 11-13%-এর শ্রেণিতে ওঠা-নামা করেছিল। লাইটকয়েন (LTC/USD), রিপল (XRP/USD) এবং এথিরিয়াম (ETH/USD)।
    এ থেকে একটাই সিদ্ধান্তে আসা যায়: বাজার একটি অনিশ্চয়তাপূর্ণ অবস্থায় আছে, এবং প্রদর্শনকারীরা, বুল ও বিয়ার উভয়েই, ঝুঁকি নিতে ভয় পেয়ে গিয়ে, দূরবর্তী কোন সংকেত অনুমান করে থমকে গেছিল।

 

আগামি সপ্তাহের পূর্বাভাসের ক্ষেত্রে, একাধিক বিশ্লেষকদের মতামতগুলোকে, ও সেই সঙ্গে প্রযুক্তিগত ও গ্রাফিক্সভিত্তিক বিশ্লেষণের বহুবিধ পদ্ধতির ভিত্তিতে করা পূর্বাভাসগুলোকে একত্রিত করে, আমরা নিম্নোক্ত কথাগুলো বলতে পারি:

  • EUR/USD। আগামি 24-26 আগস্টে হতে চলা G7 নেতৃত্বের বৈঠক হল গ্রীষ্মের শেষের দিকের ঘটনাগুলির মধ্যে অন্যতম। এই বৈঠককে উপেক্ষা করা যায় না। তবে, G7 দেশগুলির প্রধানদের এই আলাপালোচনাগুলির ফলাফল মুদ্রা বিনিময়ের বাজারে নির্দিষ্ট কোন প্রবণতা তৈরি করে দেবে এমন সম্ভাবনা নেই। খুব সম্ভবত, এই দেশের প্রধানেরা তাদের নিজ-নিজ কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলিকে অভ্যন্তরীণ ও বহির্বিশ্বের বিপদগুলির প্রতি আরও সক্রিয় প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে অনুরোধ করবে। বিনিয়োগকারীরা সেপ্টেম্বরে ইউরোর সূদের হার কমানোর যে ঘোষণা করা হয়েছে তাতে এবং ইউরোপীয় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের QE কার্যক্রমের পুনরুজ্জীবনের ব্যাপারে এবং সেই সঙ্গে ফেডেরাল রিজার্ভ কবে এবং কতটা তাদের সূদের হার কমাবে এইসব ব্যাপারে অনেক বেশি ত্রস্ত হয়ে আছে।
    গত 23শে আগস্ট সন্ধ্যায় জেরোম পাওয়েলের বক্তব্যের পর এবং এই জুটির সোজা উত্থানের পর, এটি স্বাভাবিক যে, গ্রাফিক্স সহযোগে করা বিশ্লেষণ ও H4-র উপরের সূচকগুলির বেশিরভাগই ঊর্ধ্বমুখী গতি দেখছে। তবে, D1-এ এই ছবিটা একেবারে আলাদা: প্রবণতার সূচকগুলির 70%-ই লালা হয়ে গেছিল, এবং অসিলেটরগুলির মধ্যে, হয় লাল নতুবা ধূসর রংয়েরই প্রভাব ছিল। একই সঙ্গে, সেগুলির 10% ইতিমধ্যেই এই জুটির অতিমাত্রায় বিক্রির ইঙ্গিত করেছে।
    ডলারের মজবুত হওয়া এবং এই জুটির আগস্টের নিম্ন স্তর 1.1025-1.1050-এ ফিরে আসারও প্রত্যাশা 65% বিশ্লেষক করেছিলেন। বাকি 35% বিশেষজ্ঞ আরেকটি বিকল্প মত তুলে ধরেছেন, যাদের মতে, এই জুটি খুব ভালভাবেই 1.1200-1.1250-র অঞ্চলে পৌঁছাতে পারে। পরবর্তী লক্ষ্য হল 100 পয়েন্ট উপরে;

  • GBP/USD। Brexit-এর থেকে কম সক্রিয় আলোচনা গোটা বিশ্বে এই বিষয়টা নিয়ে হচ্ছে না যে, ফরাসী প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রনের সঙ্গে বৈঠক চলাকালীন নবনির্বাচিত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন কফি টেবিলে পা রেখেছেন। ম্যাক্রন ব্রিটেনের সঙ্গে সম্পর্কের ব্যাপারে EU-এর কড়া মনোভাবের একজন অন্যমত ধারাবাহিক সমর্থক ছিলেন এবং আছেন।  আর হয়ত তার ব্রিটিশ সহকর্মী তার মতো করে দেখাতে চেয়েছেন যে, ফ্রান্সের অবস্থান, একটু হালকা করে বললে, তাকে খুব একটা ভাবায় না?
    নিশ্চিতভাবেই, মার্কেল, ম্যাক্রন এবং জনসন G7 বৈঠক চলাকালীন বরাবর নিজেদের মধ্যে সম্পর্ক রেখে চলেছেন, কিন্তু তাদের এই সম্পর্ক রেখে চলার পরও EU থেকে ব্রিটেনের কোন চুক্তি ছাড়াই বেরিয়ে আসার সম্ভাবনা আগের মতোই থেকেও গেছে। এই কারণেই বিশেষজ্ঞদের মধ্যে 70%, H4 এবং D1-এর উপর গ্রাফিক্স সহযোগে করা বিশ্লেষণগুলির সঙ্গে সম্পূর্ণ একমত হয়ে, নিম্নমুখী প্রবণতার একটি ধারাবাহিকতা এবং এই জুটির 12ই আগস্টের নিম্ন স্তর 1.2015-এ নেমে যাওয়ার প্রত্যাশা করেন। নিকটতম প্রতিরোধের অঞ্চল হল 1.2280-1.2320 যেখানে সমর্থনের ক্ষেত্রগুলি হল 1.2180-1.2200 এবং 1.2075-1.2100।
    বিশ্লষকদের 30% এখনও বুল-এর পক্ষেই রয়েছেন, এই বিশ্বাস থেকে যে, Brexit চুক্তি সংক্রান্ত ভাল খবর এখনও শেষ হয়ে যায়নি, এবং এই জুটির মধ্যে এখনও 1.2415-1.2520-র অঞ্চলে উত্থানের ক্ষমতা রয়েছে। সূচকগুলির মধ্যে 70%-এর বেশি এই পরিস্থিতিকে সমর্থন করে। তবে, D1-এর উপরের অসিলেটরগুলির 15% ইতিমধ্যেই এই জুটির মাত্রাতিরিক্ত বিক্রির সংকেত দিচ্ছে;
  • USD/JPY। সেই সঙ্গে বিশেষজ্ঞেরা (70%) ইয়েনের সাপেক্ষে ডলার মজবুত হবে এমন প্রত্যাশাও করছেন। এই ঘটনা সত্যেও যে, জাপানের মুদ্রা, স্যুইস ফ্র্যাঙ্ক সমেত, সবচেয়ে নিরাপদ মুদ্রা হিসেবেই থেকে গেছে, বহু গুরুত্বপূর্ণ বিনিয়োগকারী শর্ট পজিশনগুলিকে নির্দিষ্ট করতে শুরু করেছেন, তাদের মূলধনকে সোনায় পরিবর্তিত করে নিয়ে।
    ব্যাংক অব জাপানের প্রতিনিধি সেউরি শিরাইয়ের মতে, যিনি 22শে আগস্ট বৃহস্পতিবার বলেন, আসন্ন মন্দার মোকাবিলার জন্য, এই ব্যাংক সূদের হারে আরও কিছু ছাড়া দিয়েছে, যা ইতিমধ্যে ঋণাত্মক এবং বিয়োগ 0.1%-এ দাঁড়ায়, যে বিষয়টিও ইয়েনের বিরুদ্ধে গেছে।
    ঊর্ধ্বমুখীদের আশু লক্ষ্য হল 106.20-106.70-এর অঞ্চলে ফিরে যাওয়া, তারপর ভেঙ্গে যাওয়া এবং 107.00-র স্তরে স্থিতিশীল হওয়া। নিম্নমুখীদের (30%) ক্ষেত্রে, এগুলি, D1-এর উপরের সূচকগুলির মধ্যে 90%-এর সমর্থন-সহ, 105.00-এর নিচের অঞ্চলকে ভাঙ্গার চেষ্টা করবে, এবং এই জুটিকে মার্চ 2018-র নিম্ন স্তর 104.60-এ নামিয়ে আনবে।
  • ক্রিপ্টোকারেন্সি। সাধারণভাবে, খবরের প্রেক্ষাপট বেশ অনুকূল: ব্যাংক অব আমেরিকা ডিজিটাল সম্পদগুলিকে সংরক্ষণের জন্য একটি ব্যবস্থার পেটেন্ট নেবার পরিকল্পনা করছে। আরেক US ব্যাংক, সিলভারগেট, একটি নতুন পরিষেবা বাজারে আনার পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করেছে - ক্রপ্টোকারেন্সির বিনিময়ে ঋণ দেওয়া। - নোবল ইনস্যুরেন্স-এর করা একটি অধ্যয়নে দেখা গেছে যে, 2018-2019 সময়কালের মধ্যে ক্রিপ্টোকারেন্সির বাজার 48% বৃদ্ধি পেয়েছে এবং আগামি 12 মাসেও তা বেড়েই চলবে।
    আরও একটি কৌতূহলোদ্দীপক খবর আছে। US অর্থনীতিবিদ জিম রিকার্ডসের একটি মন্তব্য অনুযায়ী, রাশিয়া ও চীন একত্রে তাদের নিজস্ব ক্রিপ্টোকারেন্সি তৈরির চেষ্টা করছে, যাকে সোনার সঙ্গে সংযুক্ত করা হবে। আর সুনির্দিষ্টভাবে এই কারণেই, তার মতে, তারা সাম্প্রতিক বছরগুলিতে এতো সক্রিয়ভাবে এই বহুমূল্যবান ধাতুটি কিনে চলেছে।
    কেউ এ ব্যাপারে রিকার্ডসের সঙ্গে তর্ক করতে পারে। প্রথমত, রাশিয়া ও চীন যৌথভাবে কেন একটি মুদ্রার প্রচলন করতে যাবে? এই দুটি দেশ নিজ-নিজ ক্ষমতাতেই নিজেদের ক্রিপ্টোকারেন্সির প্রচলন করতে পারে। আর দ্বিতীয়ত, তারা কোন ডিজিটাল মুদ্রার প্রচলনের জন্য তাদের সোনার ভাণ্ডার পরিপূর্ণ করছে তা নয়, বরং US ডলারের প্রতি তাদের নির্ভরতা কমাবার জন্যই তা করছে।
    পূর্বাভাসের ক্ষেত্রে, ক্রিপ্টো অনুরাগীরা, স্বভাবতই, বিটকয়েনকে তুলে ধরার সবরকম প্রয়াস চালিয়েছেন। এইবার, বিখ্যাত ট্রেডার অ্যালেক্স ক্রুগার একটি দৈববাণীর মতো ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন। তার মতে, বিটকয়েনের দাম শীঘ্রই বাড়তে শুরু করবে এবং 2021-এর মধ্যে তা 50 হাজার ডলারে পৌঁছে যাবে। কিন্তু একই সঙ্গে ক্রুগার এ-ও বলেছেন যে, এটি তখনই হবে ... যদি  এই মুদ্রা এখন তার অবস্থান 10 হাজার ডলারে ধরে রাখতে পারে। দেখুন, এতে কারো কী-ই বা বলার থাকতে পারে?
    বিটকয়েনের ভয় এবং গ্রিড ইন্ডেক্স সম্প্রতি পড়ে গিয়ে চূড়ান্ত ভয়ের লক্ষ্যে নেমে যায়। 70% বিশেষজ্ঞ দক্ষিণে দেখছেন, কিন্তু তা সত্ত্বেও তারা পতনের গণ্ডীকে সঠিকভাবে $9,000-9,500-র অঞ্চলে চিহ্নিত করেছেন। এটি সম্ভব যে, এই সমর্থন থেকে ঠেলে তুলে, বিটকয়েন $12,000 এবং $20,000 লক্ষ্যগুলির দিকে যাত্রা শুরু করবে। কিন্তু এত তড়াতাড়ি তা নিয়ে কথা বলা যায় না এবং আমাদের স্পষ্ট সংকেতের জন্য অপেক্ষা করে থাকতে হবে।

 

রোমান বুটকো, NordFX

 

দ্রষ্টব্য: এই বিষয়বস্তুটিকে বিনিয়োগের সুপারিশ অথবা আর্থিক বাজারগুলিতে কাজ করার দিকনির্দেশ হিসেবে বিবেচনা করা উচিৎ হবে না: এগুলির উদ্দেশ্য শুধুমাত্র তথ্য সরবরাহ করা। আর্থিক বাজারগুলিতে কেনা-বেচা করা ঝুঁকিপূর্ণ কাজ এবং তা লগ্নীকৃত অর্থ হারানোর কারণ হতে পারে।


« বাজার বিশ্লেষণ ও সংবাদ
প্রশিক্ষণ
গ্রহণ করুন
মার্কেটে নতুন? ব্যবহার করুন “শুরু করা যাক” বিভাগটি।
প্রশিক্ষণ শুরু করুন
আমাদের অনুসরণ করুন (সামাজিক নেটওয়ার্কগুলিতে)