অক্টোবর 27, 2018

-প্রথমে, গত সপ্তাহের ঘটনাবলীর বিষয়ে পর্যালোচনা করা যাকঃ

  • EUR/USD মুদ্রাজুড়ি। পূর্বাভাস দেবার সময় আমরা ধরে নিয়েছিলাম যে অর্থনৈতিক ক্যালেণ্ডারে উল্লেখিত কোন ঘটনাই বাজারকে নাড়া দিতে পারবে না। এবং আমরা সঠিক বলে প্রতিপন্ন হয়েছিলামঃ বাজার বরং খুবই শ্লথ গতিতে প্রতিক্রিয়া দিয়েছিল এমনকি ইসিবি-র (ECB)প্রধান মারিও দ্রাঘির বিবৃতি এবং ইউএস জিডিপি ডেটার পরেও, যা আমরা যতটা আশা করেছিলাম তার থেকে 0.2% বেশী হয়েছিল।
    আমাদের গত সপ্তাহের দ্বিতীয় পূর্বাভাস ছিল ডলারের বৃদ্ধি পাওয়া, যেটিকে 70% বিশেষজ্ঞরা সমর্থন করেছিলেন। এবং এটি ইউরোর তুলনায় প্রায় 200 পয়েন্ট শক্তিশালী করেছিল। EUR/USD মুদ্রাজুড়ি স্পষ্টভাবে নীচের দিকে যাচ্ছিল, পরের পর, সিড়ি দিয়ে নামার মতন, সারা সপ্তাহ জুড়েই, যতক্ষণ না পর্যন্ত এই জুড়ি 1.1335-এর স্তরে পৌঁছিয়েছিল। এর পরে, ইউরো 65 পয়েন্ট ফিরে পেয়েছিল, এবং এই জুড়ি 1.1400-এর অঞ্চলে সপ্তাহটি শেষ করেছিল; 
  • GBP/USD মুদ্রাজুড়ি। মনে করুন তো 90%-এর বেশী বিশেষজ্ঞ, নির্দেশকদের অপ্রতিরোধ্য সংখ্যাগরিষ্ঠকে সমর্থনে ভেবেছিল যে আবারও ব্রিটিশ মুদ্রার পতন হবে। এই পূর্বাভাস পুরোপুরি সঠিক বলে প্রমাণিত হয়েছিল, এবং পাউণ্ড প্রায় 300 পয়েন্ট খুঁইয়েছিল। এই মুদ্রাজুড়ির চার্ট প্রকৃতপক্ষে EUR/USD মুদ্রাজুড়ির চার্টকে অনুসরণ করেছিলঃ নিয়মিত সংশোধনের সাথে সাথে পতন সপ্তাহের একদম শেষ পর্যন্ত, যখন এই মু্দ্রাজুড়ি 1.2825-এ থেমেছিল;
  • USD/JPY মুদ্রাজুড়ি। ইউরোপিয়ান মুদ্রার পূর্বাভাস করার সময় যেখানে বিশেষজ্ঞরা আশা করেছিলেন যে ডলার উর্ধ্বমুখী হবে, এখানে অভিমত ঠিক তার বিপরীত ছিলঃ ইয়েনের শক্তিশালী হওয়া উচিত ছিল, তা সেটা অল্প হলেও, বিশেষ করে ইউএস-চীনের বাণিজ্যিক যুদ্ধের পরিপ্রেক্ষিতে। আশু লক্ষ্যমাত্রা ছিল 112.00 এবং 111.65-এর স্তর। এই মুদ্রাজুড়ি পর্যায়ক্রমে এই লক্ষ্যমাত্রা ছুঁইয়েছিল, এটি 111.37-এ নেমেছিল এবং সপ্তাহটি 111.88-এর অঞ্চলে শেষ করেছিল; 
  • ক্রিপ্টোমুদ্রা। যেমন আমরা পূর্বাভাস করেছিলাম, সোমবার, 15ই অক্টোবরে মিথ্যে সংবাদ পরিবেশনার পরে, এই বাজার সংহতির দশায় ফিরে গিয়েছিল। ripple সবথেকে বেশী ওঠানামা প্রদর্শন (প্রায় 8%) করেছিল।  আর সেই সময়ে bitcoin, litecoin এবং ethereum অনেক চিরাচরিত মুদ্রা এবং শেয়ারের থেকে আরো বেশী শীতল আচরণ করেছিল। যেমন আরেকটি ক্রিপ্টো এক্সচেঞ্জের আরেকবার হ্যাকিং হওয়া সত্ত্বেও BTC/USD ক্রিপ্টোমুদ্রা 6,460-6,655$-এর খুব সংকীর্ণ প্রান্তে স্থিত ছিল।
    আমরা উত্তর কোরিয়ান ল্যাজারাস হ্যাকার গ্রুপের স্যুইস এক্সচেঞ্জ Trade.io.-এ হ্যাকিংয়ের কথা বলছি। সাধারণভাবে বলতে গেলে, CipherTrace-এর অনুসারে, 2018 সালে ক্রিপ্টোমুদ্রার চুরির সংখ্যা তার আগের বছরের তুলনায় 3.5 গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে, এবং চুরি যাওয়া তহবিল দ্রুততার সাথে 1 বিলিয়ন ইউএস ডলারের দিকে এগোচ্ছে। এছাড়াও, প্রায় 60% চুরি উত্তর কোরিয়ান হ্যাকার দ্বারা সম্পন্ন হয়েছে।  

 

-আসন্ন সপ্তাহের পূর্বাভাসের বিষয়ে, অনেক সংখ্যক বিশ্লেষকদের মতামতের সাথে সাথে প্রাযুক্তিক ও রৈখিক বিশ্লেষণের বিভিন্ন পদ্ধতির ভিত্তিতে কৃত পূর্বাভাসগুলিকে সংক্ষিপ্ত করে আমরা নিম্মলিখিত বক্তব্য রাখছিঃ

  • EUR/USD মুদ্রাজুড়ি। বেশীরভাগ বিশ্লেষক ডলারের আরো শক্তিশালী হবার জন্য অপেক্ষা করছেন। যদিও এই সংখ্যাগরিষ্ট অংশ ক্ষুদ্র, 55% বনাম 45%।
    পরবর্তী সপ্তাহে অনেক আর্থিক ঘটনা ঘটতে যাচ্ছে, যার মধ্যে আমরা দুটির উল্লেখ করব। প্রথমটি হল মঙ্গলবার, 30শে অক্টোবরে ইউরোজোনের 3য় ত্রৈমাসিক জিডিপি ডেটার প্রকাশ। যদি ফলাফল আরো খারাপ না হয় বা অন্ততপক্ষে 2য় ত্রৈমাসিকের মত হয়, এটি ইউরোর পক্ষে কাজ করতে পারে।
    ডলারের কথা বলতে গলে, শ্রমবাজারের ডেটা (NFP সহ)যা শুক্রবার, 2য় নভেম্বরে প্রকাশ হতে যাচ্ছে, এর পক্ষে যেতে পারে।
    এই পূর্বাভাস লেখার সময়, প্রবণতা নির্দেশকএবং দোদুল্যমান সূচকদের এক অপ্রতিরোধ্য সংখ্যাগরিষ্ঠ অংশ লাল রং দেখাচ্ছে। তবে, 10% দোদুল্যমান সূচক ইতিমধ্যেই এই সংকেত দিয়েছে যে এই মুদ্রাজুড়ির D1-তে বেশী বিক্রয় হয়েছে, যা হল এক সম্ভাব্য শক্তিশালী সংশোধনের অগ্রদূত বলা যেতে পারে, যার ফলে, রৈখিক বিশ্লেষণের ইঙ্গিত অনুযায়ী, এই মুদ্রাজুড়ি 1.1450-এর স্তরে উঠতে পারে অথবা আরো 80 পয়েন্ট বৃদ্ধি পেয়ে 1.1530-এর স্তরে পৌঁছাতে পারে, আর তারপরে ক্রমাগত পতন হতে পারে। 
    মন্দাবাজারের লক্ষ্য হল এই বছরের সর্বনিম্ন 1.1300-এর স্তরে যাওয়া, যা 15ই আগস্টে স্থিত হয়েছিল। এই মুদ্রাজুড়ির 6ই নভেম্বরে ইউএস-এর মধ্যবর্তী নির্বাচন এবং 8ই নভেম্বরে ফেড-এর বৈঠকের আগে এই দাগের নীচে যাবার সম্ভাবনা কম রয়েছে। যদিও এই সহায়তাকে ভেঙ্গে ফেলার প্রচেষ্টার সম্ভাবনাকেও উড়িয়ে দেওয়া যায় না। 
  • GBP/USD মুদ্রাজুড়ি। পাউন্ড ইতিমধ্যে এই জুড়ির পতনে সেপ্টেম্বরের নিম্ন পয়েন্টে পৌঁছিয়ে গিয়েছে, পরবর্তী লক্ষ্যমাত্রা হল 2018 সালের সর্বনিম্ন পয়েন্ট 1.2660-এ পৌঁছানো। এবং 70% বিশেষজ্ঞরা এই স্থানে পৌঁছাতে কোন গুরুতর অসুবিধা দেখতে পাচ্ছেন না। 
    ব্রেক্সিট সমস্যা উধাও হয়ে যায় নি, দেশের অর্থনীতি খুঁড়িয়ে চলছে, এবং প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে-র পদত্যাগের হুমকি এই সমস্তের মধ্যে বোঝা বাড়িয়েছে। এর ফলে, ব্রিটিশ পাউণ্ডের আকর্ষণ বিনিয়োগকারীদের কাছে দ্রুত কমে আসছে এবং একটি আশ্রয়দায়ক মুদ্রা থেকে ঝুঁকিপূর্ণ পরিসম্পদে পরিণত হতে চলেছে।
    তবে, এই নিরাশাজনক পটভূমিকার মধ্যেও 30% বিশ্লেষক এখনও সজোরে এক উর্ধ্বমুখী অবস্থানে ফিরে যাবার আশা করছেন। এটি হতে পারে যদি বৃহত্ ট্রেডারদের দ্বারা ডলারের মাসিক লাভকে স্থির রাখা যায় এবং মঙ্গলবার 1লা নভেম্বরে ব্যাংক অফ্ ইংল্যাণ্ডের বৈঠক ইতিবাচক হয়। এই সজোরে ফিরে আসার ফলে, এই মুদ্রাজুড়ি হয়তো 1.3045-1.3255-এর অঞ্চলে ফিরে আসতে পারে। নিকটতম প্রতিরোধক স্তর হল 1.2930।
    নির্দেশকদের পঠনগুলি হল যে এই মুদ্রাজুড়ির জন্য ইউরো/ডলার মুদ্রাজুড়ির পঠনের প্রায় 100% পুনরাবৃত্তি ঘটতে পারেঃ তাদের প্রায় সবগুলিকেই লাল রংয়ের দেখাচ্ছে, এবং মাত্র 10% দোদুল্যমান সূচক নির্দেশ করছে যে পাউণ্ডের অধিক বিক্রয় হয়েছে।
    এক সমঝোতা পূর্বাভাস রৈখিক বিশ্লেষণ দ্বারা প্রদত্ত হয়েছে, যাদের মতে, এই মুদ্রাজুড়ি কয়েক দিনের জন্য 1.2800-1.2930-এর পার্শ্ববর্তী চ্যানেলে গমন করবে;

  • USD/JPY মুদ্রাজুড়ি। শুক্রবার, 26শে অক্টোবরের সন্ধ্যায়, এই মুদ্রাজুড়ির পতন থেমেছিল, এবং ঘুরে গিয়ে, 111.80-এর শক্তিশালী সহায়ক/প্রতিরোধক স্তর ভাঙ্গতে সমর্থ হয়েছিল। বেশীরভাগ বিশেষজ্ঞগণ (70%), রৈখিক বিশ্লেষণের দ্বারা সমর্থিত হয়ে বিশ্বাস করেন যে এটি ডলারের পরবর্তী সময়ে শক্তিশালী হবার একটি সুস্পষ্ট সংকেত এবং এই মুদ্রাজুড়ির অন্ততপক্ষে 112.85-এ বৃদ্ধি পাবে। পরবর্তী লক্ষ্যমাত্রা হল 113.35 এবং 114.55।
    বাকি 30% বিশ্লেষকগণ এক বিকল্প পরিস্থিতির পক্ষে ভোট দিয়েছেন। তারা আশা করেন যে ব্যাংক অফ্ জাপানের বৈঠক এবং বুধবার 31শে অক্টোবরে প্রধান হারুহিকো কুরোদার বক্তব্য জাপানী মুদ্রাকে সমর্থন যোগাতে সমর্থ হবে এবং এই জুড়ির দরকে 110.75-111.40-এর অঞ্চলে নিয়ে যেতে সাহায্য করবে;
  • ক্রিপ্টোমুদ্রা। ক্রিপ্টোমুদ্রার বিষয়ে গুগল রিসার্চ এই বছরের দশ মাসে 93% হ্রাস পেয়েছে। দুমাস ধরে ক্রিপ্টোবাজারে সর্বমোট মূলধন সন্নিবেশ প্রায় 200 বিলিয়ন ডলারে ওঠানামা করছে, যা ইঙ্গিত করছে যে bitcoin এবং ক্রিপ্টোবাজার উভয়তেই সার্বিকভাবে বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ কমে এসেছে।
    এই বাজার প্রকৃতপক্ষে কোন গুরুত্বপূর্ণ খবরের আবির্ভাবে চাঙ্গা হয়ে উঠতে পারে। অন্যথা, মন্দাবাজারের প্রভাবের আধিক্যের কারণে BTC/USD ক্রিপ্টোজুড়ি 6,325-6,660$-এর সংকীর্ণ প্রান্তের পরিসরে ঘোরাফেরা করবে। পরবর্তী প্রতিরোধক স্তর হবে 6,780, এবং সহায়ক স্তর, পূর্বের মতই, 6,100$-এর লাভজনক ট্রেডিং করার অবস্থায় থাকবে।     

 

-রোমান বাটকো, NordFX


-বিজ্ঞপ্তিঃ এই লেখনীগুলিকে আর্থিক বাজারে লেনদেন করার জন্য বিনিয়োগ বা নির্দেশিকার জন্য সুপারিশ হিসাবে গণ্য করা উচিত হবে নাঃ এগুলি শুধুমাত্র তথ্যমূলক উদ্দেশ্যে করা হয়েছে। আর্থিক বাজারে ট্রেডিং ঝুঁকিপূ্র্ণ এবং এতে সমস্ত গচ্ছিত অর্থের ক্ষতি হয়ে যেতে পারে।


« বাজার বিশ্লেষণ ও সংবাদ
প্রশিক্ষণ
গ্রহণ করুন
মার্কেটে নতুন? ব্যবহার করুন “শুরু করা যাক” বিভাগটি।
প্রশিক্ষণ শুরু করুন
আমাদের অনুসরণ করুন (সামাজিক নেটওয়ার্কগুলিতে)