সেপ্টেম্বর 23, 2018

-প্রথমে, গত সপ্তাহের ঘটনাবলীর বিষয়ে পর্যালোচনা:

  • EUR/USD মুদ্রাজুড়ি। মনে করুন তে বেশীরভাগ বিশেষজ্ঞরা (55%) এই মুদ্রাজুড়ির আবারো বৃদ্ধি এবং 1.1745-1.1845-এর অঞ্চলে স্থানান্তরের কথা বলেছিলেন। এই পূর্বাভাস 100% সত্যি বলে প্রমাণিত হয়েছিল, এবং এই মুদ্রাজুড়ি পাঁচ দিনে 180 পয়েন্ট বৃদ্ধি পেয়ে শুক্রবার সকালে 1.1802 -এ সাপ্তাহিক উচ্চতায় স্থিত হয়েছিল।
    ডলারের দুর্বল হওয়ার মূল কারণ ছিল চীন এবং আমেরিকা হয়তো পুরোপুরি বাণিজ্য যুদ্ধ এড়াতে পারবে বলে একটি আশা ছিল। আমেরিকার ভয়ানক বিজয় খুব বেশী প্রতিভাত হতে পারে নি, এবং বিনিয়োগকারীরা তাদের মনোযোগ আরো বেশী ঝুঁকিপূর্ণ শেয়ারের দিকে রেখেছিলেন এবং বিপুল ডলার বিক্রি করেছিলেন।
    ইউএস মুদ্রার পতনের আরেকটি কারণ ছিল কানাডা এবং ইউএস-এর মধ্যে উত্তর আমেরিকা মুক্ত বাণিজ্য অঞ্চলের চুক্তি (NAFTA) হওয়ায় বিলম্ব। 25-26শে সেপ্টেম্বরে আসন্ন সুদের হারের বৃদ্ধির বিষয়ে, বাজার ইতিমধ্যেই অনেক আগে থেকে এতে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছে। এর ফলে,ডলার সূচকের মান গত দু-মাসের সর্বনিম্ন পতনে নেমে এসেছে। তবে, শুক্রবারের একদম শেষে, "ডলার" তার ক্ষতির কিছুটা পূরণ করতে সমর্থ হয়েছিল, এবং এই মুদ্রাজুড়ি দীর্ঘ-সাপ্তাহিক ম্যারাথন দৌড় 1.1750-এ সমাপ্ত করেছিল;     
  • GBP/USD মুদ্রাজুড়ি। 60% বিশেষজ্ঞ, অপ্রতিরোধ্য সংখ্যাগরিষ্ঠ দোদুল্যমান সূচক, প্রবণতা সূচক এবং H4-তে রৈখিক বিশ্লেষণের সহায়তায়, মনে করেছিলেন যে এই মুদ্রাজুড়ি 1.3210-1.3315-এর অঞ্চলে তার বৃদ্ধি বজায় রাখতে পারবে। আর ঠিক তাই ঘটেছিলঃ বৃহস্পতিবারে এই মুদ্রাজুড়িকে 1.3296-এ সর্বোচ্চ উচ্চতায় দেখা গিয়েছে। উপরে তালিকাভুক্ত কারণগুলি ছাড়াও, ইউকে-তে ইতিবাচক খুচরো বিক্রির পরিসংখ্যান এবং ব্রেক্সিট আলোচনায় আইরিশ সমস্যার বিষয়ে কিছুটা অগ্রগতির কারণে পাউণ্ডের বৃদ্ধিতে সাহায্য করেছিল।
    তবে, ডলারকে ছাপিয়ে পাউণ্ডের বিজয় স্বল্প-স্থায়ী হয়েছিল, এবং শুক্রবারে, দু-সপ্তাহের উর্ধগামী চ্যানেলের সহায়ক অঞ্চল ভেঙ্গে দিয়ে, এই মুদ্রাজুড়ির প্রায় 200 পয়েন্ট পতন হয়ে সপ্তাহের শুরুর 1.3075-এ ফিরে এসেছিল। কারণ একই ছিলঃ ব্রেক্সিটের অনিশ্চয়তা;
  • USD/JPY মুদ্রাজুড়ি। যেখানে ডলার ইউরো এবং পাউণ্ডের তুলনায় দুর্বল হতে যাচ্ছিল, এটি কিন্তু ইয়েনের তুলনায় শক্তিশালী হওয়া বজায় রেখেছিল। এই সপ্তাহে ঝুঁকি-মুক্ত শেযারের সুদ খুব দ্রুত কমতে শুরু করেছিল, এবং, আমেরিকান মুদ্রা ছাড়াও, জাপানী মুদ্রাও এই তালিকায় ছিল। এবং ইয়েনের ঋণাত্মক সুদের হার -0.1% হওয়ায় পরে, বিনিয়োগকারীদের অনাকষর্ণীয় মুদ্রা তালিকার উপরে ছিল, যা ডলারের আগে ছিল। এর ফলে, ইয়েন ডলারে কাছে প্রায়  50 পয়েন্ট খুঁইয়েছিল, এবং এই মুদ্রাজুড়ি এই সপ্তাহটি 112.60-এ শেষ করেছিল;
  • ক্রিপ্টোমুদ্রা। যেমন আশা করা হয়েছিল, bitcoin 6,000$ এবং 7,000$-এর সংকীর্ণপ্রান্তে স্থিত হয়েছিল, যা সপ্তাহের প্রথমার্ধের পতন সামলিয়ে নিয়ে পরবর্তীকালে 6,700$-এর উপরে উঠেছিল। পাঁচ-দিনের শেষে এই সপ্তাহটি প্রথম 100-টি ক্রিপ্টোমুদ্রার মালিকদের সন্তুষ্ট করতে পেরেছিল, যেগুলিকে সবুজ অঞ্চলে অবস্থান করতে দেখা গিয়েছিল। কিন্তু যদিও ethereum (ETH/USD) অথবা litecoin (LTH/USD)-এর বৃদ্ধি অপেক্ষাকৃত দুর্বল হয়ে পড়েছিল, ripple (XRP/USD) প্রায় 45% উর্ধ্বমুখী লম্ফন দিয়ে সপ্তাহের প্রকৃত তারকা হয়ে উঠেছিল। এদের বৃদ্ধির কারণগুলির অন্যতম হল Ripple ব্যবস্থাপনার একটি নতুন পণ্য xRapid শুরু করা, সংস্থার বিশ্বের বৃহত্তম এশিয়ান অর্থ স্থানান্তরণের বাজার থেকে বেরিয়ে আসা এবং আফ্রিকায় এদের কাজ শুরু করা।

 

-আসন্ন সপ্তাহের পূর্বাভাসের বিষয়ে, অনেক সংখ্যক বিশ্লেষকদের মতামতের সাথে সাথে প্রাযুক্তিক ও রৈখিক বিশ্লেষণের বিভিন্ন পদ্ধতির ভিত্তিতে কৃত পূর্বাভাসগুলিকে সংক্ষিপ্ত করে আমরা নিম্মলিখিত বক্তব্য রাখছিঃ

  • EUR/USD মুদ্রাজুড়ি। আসন্ন সপ্তাহে অনেক ঘটনায় পরিপূর্ণ থাকবে যা প্রবণতা এবং এক্সচেঞ্জ হারকে প্রভাবিত করতে পারে। ডলার জুড়ির কথা বলতে গেলে, এইগুলির মধ্যে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা হবে সুদের হারের বিষয়ে ফেড-এর সিদ্ধান্ত। এটি বলার প্রয়োজন নেই যে বাজার ইতিমধ্যেই বৃদ্ধির প্রস্তুতি নিয়ে ফেলেছে, কিন্তু বুধবার 26শে সেপ্টেম্বরে ওঠানামার বৃদ্ধি এখনো নিশ্চিত রয়েছে। কিন্তু কোনভাবে যদি হার অপরিবর্তিত থাকে, এর ফলে একটি বিস্ফোরণ ঘটবে, এবং ডলারের মহাজাগতিক গতিতে পতন হবে।
    ইউএস ফেডারেল রিজার্ভের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এখনো অজানা রয়েছে। এই পূর্বাভাস লেখার সময় পর্যন্ত, পরিস্থিতি এরকম দেখাচ্ছেঃ
    90% সূচক H4 এবং D1-তে রৈখিক বিশ্লেষণ, এবং 55% বিশেষজ্ঞরা এই মুদ্রাজুড়ির পক্ষে ভোট দিয়েছেন। নিকটতম লক্ষ্যমাত্রা হবে 1.1850, পরবর্তী লক্ষ্যমাত্রা হবে 100 পয়েন্ট উঁচুতে।
    45% বিশেষজ্ঞরা ডলারের শক্তিশালী হবার পূর্বাভাস করেছেন এবং 10% দোদুল্যমান সূচক ইঙ্গিত দিয়েছে যে এই মুদ্রাজুড়ির অধিক ক্রয় হয়েছে। সহায়ক স্তর হল 1.1620 এবং 1.1530। মাঝারি-মেয়াদের চূড়ান্ত লক্ষ্য হবে 1.1300-এ আগস্টের নিম্ন অবস্থানে স্থিত হওয়া;  
  • GBP/USD মুদ্রাজুড়ি। 55% বিশেষজ্ঞরাও এই মুদ্রাজুড়ির বৃদ্ধির পক্ষে মত দিয়েছেন, 30% এর পতনের, এবং বাকি 15% এক নিরপেক্ষ অবস্থান নিয়েছেন। শুক্রবার 21শে সেপ্টেম্বরে এক গভীর পতনের পরে, প্রবণতা সূচকের ইঙ্গিতগুলি প্রায় অর্ধেকভাগে বিভক্ত হয়েছে, এবং 20% দোদুল্যমান সূচক ইঙ্গিত দিয়েছে যে এই মুদ্রাজুড়ির অধিক বিক্রয় হয়েছে।
    রৈখিক বিশ্লেষণর কথা বলতে গেলে, এই মুদ্রাজুড়িকে H4-তে 1.3000-এর স্তরে দেখাচ্ছে, এবং D1-তে, সপ্তাহের লক্ষ্য হবে 1.2800-এর স্তর, যার পরে 1.3020-এ ঘুরে দাড়াতে পারে।
    প্রতিরোধক হবে 1.3165, 1.3215 এবং 1.3300-এর স্তরে;

  • USD/JPY মুদ্রাজুড়ি। তাত্ত্বিকভাবে বলতে গেলে, প্রবণতার গঠন ব্যাংক অফ্ জাপান কর্তৃপক্ষের মঙ্গলবার, 25শে সেপ্টেম্বরের বৈঠকের ফলাফলের দ্বারা প্রভাবিত হতে পারে, কিন্তু এটি থেকে কোন মূল্যবান সিদ্ধান্ত পাওয়ার আশা করা দুরাশা।
    বেশীরভাগ বিশ্লেষক (60%) বিশ্বাস করেন যে ইয়েন ইতিমধ্যে ডলারের জন্য অনেক সুবিধা দিয়ে দিয়েছে, এবং এখন এই মুদ্রাজুড়ির নীচের দিকে সংশোধন হওয়া উচিত হবে। H4-তে রৈখিক বিশ্লেষণ এবং D1-তে 10% দোদুল্যমান সূচকও এই পূর্বাভাসের সাথে সহমত হয়েছে, এই ইঙ্গিত দিয়ে যে এই জুড়ির অধিক ক্রয় হয়েছে। 111.70, 111.25 এবং 114.75-এর স্তরে সহায়ক স্তর থাকবে।
    এক বিকল্প পরিস্থিতির কথা বলতে গেলে, এই মুদ্রাজুড়ির বৃদ্ধি 113.20-এর উচ্চতায় পৌঁছাবে, যা 40% বিশেষজ্ঞ, D1-তে রৈখিক বিশ্লেষণ এবং H4 ও D1-তে প্রবণতা সূচক সমর্থন করছে। নিম্নলিখিত লক্ষ্যমাত্রা হবে 113.75 এবং 114.75;   
  • ক্রিপ্টোমুদ্রা। ক্রিপ্টোবাজার নিদারুণভাবে কিছু ইতিবাচক খবরের আশা করে বসে আছে যে এগুলি উপরের দিকে উঠবে। এটি বড় বড় সামর্থ্যসম্পন্ন সংস্থাগত বিনিয়োগকারীদের বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করার ইচ্ছা আছে বলে মনে হয়। তবে, কিছু বিশেষজ্ঞরা মনে করেন যে এইসব "তিমিরা"  খুব তাড়াতাড়িই শেয়ারবাজার থেকে "মাছদের"  বিদায় দিয়ে দেবে, যার পরিণতিতে বিকেন্দ্রিত অর্থের পুরো ধারণাটিই সন্দেহজনক হয়ে উঠছে। তারা গত ডিসেম্বরে bitcoin futures-এর উপস্থাপনার উল্লেখ করছেন, যা বিতর্ক হিসাবে ডিজিটাল মুদ্রার হারে এক ব্যাপক ধসের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছিল।
    কিন্তু আশঙ্কার সেখানেই শেষ নয়। উদাহরণস্বরূপ, 26শে সেপ্টেম্বরে মাউন্ট.গক্স ঋণদাতাদের এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হবার পরিকল্পনা আছে, যেখানে 170 হাজার BTC ক্রিপ্টোমুদ্রারের সঞ্চয় বিক্রি করে এই এক্সচেঞ্জের প্রাক্তন গ্রাহকদের ক্ষতি পূরণ করার আলোচনা হবে। কেউ জানে না কি ঘটতে চলেছে। কিন্তু এটি মনে করানোর পক্ষে যথেষ্ট যে এই বছরের ফেব্রুয়ারী-মার্চ মাসে, এরকম একই বিক্রির খবরে bitcoin তার প্রায় 20% দর খুঁইয়ে ফেলেছিল। এবং যদি ইউএস নিয়ন্ত্রক (SEC)  30শে সেপ্টেম্বরে ETF শুরু করার আবেদন প্রত্যাখ্যান করে, এই আদর্শ ক্রিপ্টোমুদ্রার দরের পতন হয়ে উল্লেখযোগ্যভাবে 5,000$-এর নীচে চলে যেতে পারে। SEC-এর ইতিবাচক সিদ্ধান্ত (এবং এমনকি এর সামান্য একটু ইঙ্গিতও) BTC/USD ক্রিপ্টোজুড়িকে 7,000-7,500$-এর অঞ্চলের উপরে নিয়ে যেতে পারে।  

 

-রোমান বাটকো, NordFX


« বাজার বিশ্লেষণ ও সংবাদ
প্রশিক্ষণ
গ্রহণ করুন
মার্কেটে নতুন? ব্যবহার করুন “শুরু করা যাক” বিভাগটি।
প্রশিক্ষণ শুরু করুন
আমাদের অনুসরণ করুন (সামাজিক নেটওয়ার্কগুলিতে)