সেপ্টেম্বর 2, 2018

প্রথমে, গত সপ্তাহের ঘটনাবলীর বিষয়ে পর্যালোচনা:

  • EUR/USD মুদ্রাজুড়ি। যেমন আশা করা হয়েছিল, এই সপ্তাহে বহু-অভিমুখী আর্থিক খবরে পূর্ণ ছিল, যার কারণে প্রথমে বৃদ্ধি দেখা গিয়েছিল, আর তারপরে এই জুড়ির পতন। মনে করুন তো 45% বিশেষজ্ঞরা ইউএস-চীনা আলাপ-আলোচনা, সমস্যা এবং ইউএস রাষ্ট্রপতি এবং ফেডের প্রধানের মধ্যেকার অসঙ্গতির ভিত্তিতে ডলারের আরো পতনের আশঙ্কার পূর্বাভাস করেছিলেন, এবং এই মুদ্রাজুড়ির উচ্চতা 1.1750-এ পৌঁছাবে বলেছিলেন। এর ফলে, এই মুদ্রাজুড়ি 1.1735-এর উচ্চতায় পৌঁছিয়েছিল।
    ইউরোজোন থেকে প্রাপ্ত পরিসংখ্যান ঐ  35% বিশ্লেষকদের সমর্থন করেছিল যারা ডলারের শক্তিশালী হওয়ার কথা বলেছিলেন। এর ফলে, বাকি 25% বিশেষজ্ঞরা সম্পূর্ণভাবে সঠিক প্রমাণিত হয়েছিলেন, যারা মূল প্রবণতার অভিমুখের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারেন নি, কারণ সপ্তাহের ওঠানামার পরে এই মুদ্রাজুড়ি অবশেষে এক সপ্তাহের দরে ফিরে এসেছিল এবং 1.1600-এ পাঁচ-দিনের সময়কাল সমাপ্ত করেছিল।
    যদি আমরা D1 এবং W1 চার্টের দিকে তাকাই, এটি স্পষ্ট যে আগস্টের চূড়ায় ওঠার এবং 1.1300-এ নামার পরে এই মুদ্রাজুড়ি আবারও একবার 1.1575-1.1750-এর পার্শ্ববর্তী চ্যানেলে প্রবেশ করেছিল, যেখানে এটি মধ্য-গ্রীষ্মে গমন করেছিল;
  • GBP/USD মুদ্রাজুড়ি। ব্রেক্সিট সম্পর্কিত সমস্যা এখনও বিদেশী বিনিয়োগকারীদের ভয় দেখিয়ে চলেছে। বৃহস্পতিবার 30শে আগস্ট প্রকাশিত ডেটা নির্দেশ করে যে তারা ব্রিটিশ শেয়ারপত্রগুলিকে ক্রমাগত ঠেলে সরিয়ে দিতে থাকবে। সরকারী বণ্ডের বিক্রি 1982 সালের পর থেকে এরকম উচ্চতায় পৌঁছিয়ে গিয়েছে – 17.2 বিলিয়ন পাউণ্ডে। এসত্ত্বেও, পাউণ্ড যে কেবলমাত্র তার অবস্থান ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে তাই নয়, এমনকি ডলারের বিরুদ্ধে এর 200 পয়েন্টও বৃদ্ধি হয়েছে যখন ইইউ আলোচনাকারী মিশেল বার্নিয়ার বুধবারে ঘোষণা করলেন যে তিনি ব্রিটিশদের এক অনন্য বাণিজ্য প্রস্তাবের সুবিধা দিতে প্রস্তুত আছেন। তবে, মি. বার্নিয়ার কিছু পরে বলেছেন যে তিনি ব্রেক্সিটের কঠিন অবস্থার পরিস্থিতিকেও বাদ দিচ্ছেন না, যার ফলে, এই মুদ্রাজুড়ি সপ্তাহের শেষে 1.2960-এর স্তরে পৌঁছিয়ে শেষ করেছে;     
  • USD/JPY মুদ্রাজুড়ি। মনে করুন তো যে বেশীরভাগ বিশেষজ্ঞরা (65%) এই মুদ্রাজুড়ির বৃদ্ধির পূর্বাভাস দিয়েছিলেন এই ইঙ্গিত দিয়ে যে লক্ষ্যমাত্রা 112.00-এর স্তরে পৌঁছাবে। 20% দোদুল্যমান সূচকের এই মুদ্রাজুড়ির অধিক ক্রয় করা ঘটনার ইঙ্গিত দেওয়া এই বৃদ্ধিকে সীমিত করতে পারে এবং প্রবণতা ঘুরিয়ে দিতে পারে। 110.75-এর স্তরকে নিকটতম সহায়ক স্তর বলা হয়েছিল।
    বাস্তবিকপক্ষে, এই মুদ্রাজুড়ি 111.82-এর উচ্চতায় উঠেছিল, এবং তারপরে 110.70-এর দিগন্তে পতন হয়েছিল, তাই এই লক্ষ্যগুলিকে মোটামুটি নির্ভুল বলে গণ্য করা যেতে পারে। চূড়ান্ত স্তর 111.10-এর অঞ্চলে স্থির হয়েছিল, যা গত ছয় সপ্তাহের মূল বিন্দু বলে গণ্য করা যেতে পারে;
  • ক্রিপ্টোমুদ্রা। ক্রিপ্টোবাজার সাফল্যের সাথে এই খবরের মোকাবিলা করেছে যে ইইএস সিকিউরিটিস অ্যাণ্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (SEC) বিটকন-তহবিলভিত্তিক বিনিয়োগ তহবিল (bitcoin-ETF) শুরু করার অনেকগুলি আবেদনপত্র প্রত্যাখ্যান করেছে। এই আবেদনগুলির পর্যালোচনার কারণের সাথে সাথে ইয়াহু ফিনান্স bitcoin, Litecoin এবং Ethereum-এর সাথে ট্রেডিংয়ের লেনদেন সম্পন্ন করার সুষোগ পাওয়ার এই খবরে এই বিষয়ক খবরও আরো আশাপ্রদ হয়েছিল।
    বিশেষজ্ঞরা BTC/USD ক্রিপ্টোজুড়ির 6,850$-এর উচ্চতায় উঠবে বলে আশা করেছিলেন, আর তারপরে তেজিবাজারের লক্ষ্যমাত্রামত 7,760$-এর স্তরে। ইতিবাচক খবরের ইঙ্গিতের সহায়তায় এই ক্রিপ্টোজুড়ি সহজেই   6,850$-এর স্তর পার করে গিয়েছিল, কিন্তু তেজিবাজারের হাওয়া 7,130$-এর উচ্চতায় শুকিয়ে গিয়েছিল এবং প্রতিরোধক স্তরে ফিরে এসে, এটিকে সহায়ক অঞ্চলে পরিণত করেছিল। তবে, এই ক্রিপ্টোজুড়ি আবারও সপ্তাহের শেষে 7,000$-এ উপরে উঠতে সক্ষম হয়েছিল।
    বৃহত্ altcoins-এর ক্ষেত্রে, তাদের রেখচিত্রগুলি মূল ক্রিপ্টোমুদ্রার সক্রিয়তার পুনরাবৃত্তি করেছিল, কিন্তু কেবলমাত্র Litecoin (LTH)-ই সামান্য বৃদ্ধি দেখাতে পেরেছিল এবং মাত্র 9% বৃদ্ধি হয়েছিল। কিন্তু Ethereum (ETH) এবং Ripple (XRP)-এই সপ্তাহের মাঝ অবধি বৃদ্ধি পাবার পরে, তাদের মূল দরে ফিরে এসেছিল।

 

-আসন্ন সপ্তাহের পূর্বাভাসের বিষয়ে, অনেক সংখ্যক বিশ্লেষকদের মতামতের সাথে সাথে প্রাযুক্তিক ও রৈখিক বিশ্লেষণের বিভিন্ন পদ্ধতির ভিত্তিতে কৃত পূর্বাভাসগুলিকে সংক্ষিপ্ত করে আমরা নিম্মলিখিত বক্তব্য রাখছিঃ

  • EUR/USD মুদ্রাজুড়ি। আসন্ন সপ্তাহের মূল প্রবণতাগুলি এইভাবে ব্যাখ্যা করা যেতে পারেঃ প্রথম সপ্তাহের অর্ধে এই মুদ্রাজুড়ির সামান্য বৃদ্ধি এবং পাঁচ-দিনের সময়কালের শেষের দিকে পতন।
    H4-তে 15% দোদুল্যমান সূচক ইঙ্গিত দিয়েছে যে এই মুদ্রাজুড়ির অধিক বিক্রয় হয়েছে। এছাড়াও, বাজার মঙ্গলবার 04ঠা সেপ্টেম্বরে ইউএস বাণিজ্যিক কার্যকলাপের নেতিবাচক ডেটার আশা ঘোষণা হবে বলে মনে করছে, যা ডলারের অবস্থান দুর্বল করতে পারে এবং এই মুদ্রাজুড়িকে 1.1700-1.1750-এর অঞ্চলে উপরে উঠতে দিতে পারে। পরবর্তী প্রতিরোধক স্তর হবে 1.1800।
    তবে, বেশীরভাগ বিশেষজ্ঞরা (60%) আশা করছেন ডলার শক্তিশালী হবে। এটি শ্রমবাজারের একগুচ্ছ ডেটা প্রকাশিত হওয়ার কারণে ঘটেছে, বৃহস্পতিবারের ADP ডেটা এবং শুক্রবারের NFP সূচকের ডেটা সহ, যা ডলারের জন্য এক শক্তিশালী সহায়ক স্তরে পরিণত হবার আশা করা হয়েছে, এবং এই মুদ্রাজুড়িকে 1.1300-এর অঞ্চলে মধ্য-আগস্টের নীচের দিকে নিয়ে আসতে পারে। নিকটতম সহায়ক স্তর হল 1.1500-1.1525-এর অঞ্চল। H4 এবং D1-তে রৈখিক বিশ্লেষণ এই ঘটনার সাথেও সহমত হয়েছে।
    এটি অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে মাঝারি-মেয়াদে, ফেড-এর আর্থিক নীতির কড়াকড়ির জন্য জিডিপি-র ইতিবাচক সক্রিয়তা এবং একটি শক্তিশালী শ্রমবাজার খুবই শক্তিশালী কারণ হয়েছে, এবং, এর পরিণতিতে, ইউএস মুদ্রার আরো শক্তিশালী হবার সম্ভাবনা হয়েছে;
  • GBP/USD মুদ্রাজুড়ি। বেশীরভাগ বিশ্লেষক (60%) উত্তরদিশার কথা বলছেন। তারা মিশেল বার্ণিয়ার অনন্য প্রস্তাব এবং গ্রেট ব্রিটেনের পরিষেবা ক্ষেত্রে ব্যবসায়িক কার্যকলাপের সূচক উভয়েরই কারণে আগস্টে এক উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি পেয়েছে – 53.5 থেকে 54.7 পর্যন্ত, যা স্টার্লিংয়ের জন্য 1.3140-1.3170-এর অঞ্চলে এক ব্যাপক তেজিবাজারের উদ্দীপকে পরিণত হয়েছে। D1-তে 80%-এর বেশী দোদুল্যামান সূচকও সবুজ রংয়ের দেখাচ্ছে।
    D1-তে এক বিকল্প পূর্বাভাসের কথা বলা হয়েছে এবং 40% বিশেষজ্ঞরা, যারা স্থিরভাবে বিশ্বাস করেন যে ব্রেক্সিট সমস্যা যেকোন ইতিবাচক আর্থিক ডেটাকে পরাস্ত করবে। এই কারণের জন্য এই মুদ্রাজুড়ির শীঘ্রই  নিম্ন প্রবণতার দিকে ফিরে আসবে। এই অঞ্চলে নিকটতম সহায়ক স্তর হল 1.2800, মূল লক্ষ্যমাত্রা হবে 1.2660;     
  • USD/JPY মুদ্রাজুড়ি। D1-তে রৈখিক বিশ্লেষণ বরং 110.00-111.4 5-এর পরিসরে বরং তির্যক চ্যানেলে একটি রেখা টানবে। 55%-এর বেশী বিশেষজ্ঞরা এবং দোদুল্যমান সূচক এই পরিস্থিতির সাথে সহমত হয়েছে, দোদুল্যমান সূচকগুলিকে প্রায় একইভাবে সবুজ, লাল এবং নিরপেক্ষ ধূসর রংয়ে দেখানো হয়েছে। এরকম পূর্বাভাসের কারণগুলি একই রয়েছে। এক দিকে কম মুদ্রাস্ফীতি, যা জাপানের জিডিপি বৃদ্ধিতে বাধা দেবে, এবং ইউএস অর্থনীতি রয়েছে, আরেকদিকে, ইউএস-চীনার বাণিজ্যিক যুদ্ধ ও ইউএস রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনী কলঙ্কের জন্য ইয়েনের ভূমিকা এক নিরাপদ আশ্রয়স্থল হিসাবে দাড়িয়েছে।
    যদি মুদ্রাজুড়ি উপরোক্ত সংকীর্ণপ্রান্তের উপরে যায়, নিম্নলিখিত সহায়ক স্তর 109.30 এবং 108.65-এতে অবস্থিত থাকবে, এবং প্রতিরোধক স্তর 112.15 এবং 113.15-এতে থাকবে;
  • ক্রিপ্টোমুদ্রা। BTC/USD ক্রিপ্টোজুড়ির তেজিবাজারের লক্ষ্য একই রয়েছেঃ 6,230$-এর সহায়ক স্তরে ভেঙ্গে পড়া, তারপরে 6,000$-এর স্তর এবং 5,760$-এর স্তরে নেমে আসা। তবে, যদি অস্বাভাবিক কিছু না ঘটে, 6,000-6,23$-লেনদেনে লাভজনকতার স্তরের নীচে পতন এখন প্রায় অসম্ভব বলে মনে হচ্ছে।
    বেশীরভাগ বিশেষজ্ঞদের মতে, এই ক্রিপ্টোজুড়ির বৃদ্ধি খুব সম্ভবত 7.760$-এ পৌঁছাতে পারে, তারপরে একটি সংশোধন, এবং তারপরে উপরের দিকে আরেকটি উর্ধমুখী লাফ, 25শে জুলাইয়ের 8.500$-এর উচ্চতার লক্ষ্যে।

 

-রোমান বাটকো, NordFX


« বাজার বিশ্লেষণ ও সংবাদ
প্রশিক্ষণ
গ্রহণ করুন
মার্কেটে নতুন? ব্যবহার করুন “শুরু করা যাক” বিভাগটি।
প্রশিক্ষণ শুরু করুন
আমাদের অনুসরণ করুন (সামাজিক নেটওয়ার্কগুলিতে)