অগাস্ট 5, 2018

-প্রথমে, গত সপ্তাহের পূর্বাভাসের বিষয়ে পর্যালোচনা করা যাকঃ

  • EUR/USD মুদ্রাজুড়ি। গত সপ্তাহ পুরো ঘটনাবহুল ছিল, যা অন্য সময়ে বাজারকে শক্তিশালী হিসাবে পরিণত করা শুরু করতে পারত। কিন্তু এখন আর নয়, বিশেষত ছুটীর মরশুমের চূড়ান্ত পর্যায়ে তো নয়ই। আমরা ইউরোজোনের জিডিপির ডেটা বা উপভোক্তা মূল্যসূচকের মান থেকে কোন আশ্চর্য কিছু আশা করি নি। সুদের হারের উপর ইউএস ফেডারেল রিজার্ভের সিদ্ধান্ত এবং ইউএস শ্রমবাজারের ডেটা প্রকাশনার উপর সামান্য আশা ছিল, কিন্তু সেখানেও কোন বিশেষ অস্থিরতার প্রতিফলন দেখা যায় নি। এমন কি এনএফপি (NFP) তে 36.7% পতনও (248হাজার থেকে 157হাজারে) বাজারকে প্রভাবিত করতে পারে নি।
    এর ফলে, পরিস্থিতি অনেক বিশেষজ্ঞদের প্রত্যাশামতই হয়েছিলঃ মানসম্মত নেতিবাচক প্রতিক্রিয়াকে বিবেচনার মধ্যে নিয়ে, এই মুদ্রাজুড়ি 1.1575-1.1750-এর পরিসরে দু-সপ্তাহের অঞ্চলে স্থিত ছিল, প্রথমে সর্বোচ্চ 1.1745-এ পৌঁছিয়ে আর তারপরে 1.1560 -এ স্থানীয় তলদেশে হাতড়িয়ে ফিরে এবং পরিশেষে 1.1567-এ এসে পাঁচ-দিনের লেনদেনের সপ্তাহটিতে সমাপ্ত করেছিল;  
  • GBP/USD মুদ্রাজুড়ি। ব্রিটিশ পাউণ্ডের ভবিষ্যত বিশেষ উতসাহজনক ছিল না, এমন কি ব্যাংক অফ্ ইংল্যাণ্ডের সুদের হারে সম্ভাব্য বৃদ্ধিতেও – 65% বিশেষজ্ঞরা মনে করেছিলেন যে GBP/USD মুদ্রাজুড়ির 1.3000-এর অঞ্চলে পতন বজায় থাকা জারি থাকবে।
    এই পূর্বাভাস পুরোপুরিই মিলে গিয়েছিল। হারের বৃদ্ধির প্রাক্কালে, পাউণ্ডের সামান্য পরিমাণে বৃদ্ধি হয়েছিল। তারপরে, যেমন আশা করা হয়েছিল, বৃহস্পতিবার, ২য় আগস্টে, নিয়ন্ত্রণ এটিকে 0.50% থেকে 0.75%-এ উঠিয়েছিল। কিন্তু তারপরে এর সঙ্গে থাকা মন্তব্য এটি স্পষ্ট করেছিল যে অদূর ভবিষ্যতে আর কোন বৃদ্ধির আশা করা উচিত হবে না – তারা বিবৃতি দিয়েছিল যে অর্থনীতির পরিস্থিতি ঠিক নয়, এবং ব্রেক্সিট নিয়ে সমস্যা রয়েছে। এর ফলে, এই মুদ্রাজুড়ি ঘুরে গেল এবং 1.2975-এর দিগন্তে গিয়ে দ্রুত পতন হল। এবং বিশেষজ্ঞরা যেমন আশা করেছিলেন, ঠিক তেমনই সাপ্তাহিক লেনদেনের শেষে 1.3000-এ গিয়ে থেমে গিয়েছিল;
  • USD/JPY মুদ্রাজুড়ি। ব্যাংক অফ্ জাপানের আর্থিক নীতির রিপোটের কারণে ইয়েনের শক্তিশালী হওয়ার পরিবর্তে পতন হয়েছিল। ব্যাংকের প্রধান হারুহিকো কুরোদার বক্তব্যের মূল নিবন্ধগুলির অভিপ্রায় ছিল অতি-নরম নীতি রক্ষা করা এবং 10–বছরের সরকারী বণ্ডের আয় বৃদ্ধির দ্বারা জাপানী মুদ্রার দুর্বলতাকে উদ্দীপিত করা যার জন্য বাজার দ্বারা বিঘ্নিত হয়েছিল।
    এর ফলে, মুদ্রাজুড়ির দর 112.15 পয়েন্ট বৃদ্ধি পেয়েছিল। তবে, এই মুদ্রাজুড়ি এই উচ্চতায় সুসংহত থাকা সামলাতে পারে নি এবং, প্রায় 90 পয়েন্ট নামার পরে, এই জুড়ি এই সপ্তাহটিতে এসে 111.25-এর স্তরে  শেষ করেছিল;
  • ক্রিপ্টোমুদ্রা। এই বাজার সারা সপ্তাহ ধরে মম্দাবাজার দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়েছিল। এটি সত্য যে bitcoin এবং বৃহত্ altcoinগুলির সাম্প্রতিককালে অধিক পরিমাণে ক্রয় হওয়া মন্দাবাজারের দিকে গিয়েছিল। নিয়ন্ত্রক এবং বাজার প্রস্তুতকারীদের থেকে ইতিবাচক খবরের অনুপস্থিতিও এই বৃদ্ধিকে কোনভাবে সাহায্য করতে পারে নি।
    এর ফলে, BTCUSD ক্রিপ্টোজুড়ির প্রায় 1,000$ পতন হয়েছিল, সারা সপ্তাহে এটি প্রায় 12% হ্রাস পেয়েছিল, এবং মধ্য-জুলাইয়ের দরে পৌঁছিয়ে প্রতিটি মুদ্রার দর প্রায় 7,280$ হয়েছিল।
    Ethereum-এর আরো পতন হয়েছিল, প্রায় 14%, এবং 400$-এর সহায়ক স্তরে কোন বিন্দুতে ভাঙ্গন ধরে। Litecoin প্রায় 11% খুঁইয়েছিল, কিন্তু ripple এর আরো বেশী স্থায়িত্ব হয়েছিলঃ প্রায় 7% পতন হয়েছিল, এটি তারপরে ঘুরে দাড়িয়েছিল এবং 2.5% ফিরে পেয়েছিল; 

 

-আসন্ন সপ্তাহের পূর্বাভাসের বিষয়ে, অনেক সংখ্যক বিশ্লেষকদের মতামতের সাথে সাথে প্রাযুক্তিক ও রৈখিক বিশ্লেষণের বিভিন্ন পদ্ধতির ভিত্তিতে কৃত পূর্বাভাসগুলিকে সংক্ষিপ্ত করে আমরা নিম্মলিখিত বক্তব্য রাখছিঃ

  • EUR/USD মুদ্রাজুড়ি। পরবর্তী সপ্তাহে এমন কোন গুরুত্বপূর্ণ ঘটনার বিষয় নেই যা গুরুতরভাবে বাজারের মেজাজকে প্রভাবিত করতে পারে। অনেক সূচক একটি কার্যত সম্পূর্ণ কার্যকলাপের অনিচ্ছার প্রতি ইঙ্গিত করছে। D1-তে MACD প্রায় আনুভূমিকভাবে টানা চার সপ্তাহ ধরে সামান্য পরিমাণে শূন্য চিহ্নের নীচে এগোচ্ছে। সমস্ত দোদুল্যমান সূচকের প্রায় 85% লাল রংয়ে অঙ্কিত হয়েছে, কিন্তু বাকি 15% ইতিমধ্যেই ইঙ্গিত দিচ্ছে যে এই মুদাজুড়ির অধিক বিক্রয় হয়েছে।
    বিশেষজ্ঞদের কথা বলতে গেলে, তাদের 70%, রৈখিক বিশ্লেষণের সহায়তায় এখনো বিশ্বাস করেন যে এই মুদ্রাজুড়ি অবশ্যই 1.1505-1.1850-এর পার্শ্ববর্তী চ্যানেলে মাঝারি-মেয়াদের নিম্নতর সীমায় পৌঁছাবে, এবং কেবলমাত্র তারপরই উপরে উঠবে। বাকি 30% বিশেষজ্ঞ 1.1575-1.1750-এর তিন-সপ্তাহের সংকীর্ণতর প্রান্তে গমনের পক্ষে ভোট দিয়েছেন;
  • ব্রিটিশ পাউণ্ডের ভবিষ্যতের দৃশ্যকল্প এখনো নেতিবাচক রয়েছে। বেশীরভাগ বিশেষজ্ঞরা (70%) অপেক্ষা করছেন কখন GBP/USD মুদ্রাজুড়ির 1.2800-এর অঞ্চলে 2017 সালের গ্রীষ্মের নীচে পতন হবে। এই ঘটনা সমস্ত দোদুল্যমান সূচক দ্বারা (একটি বাদে) এবং H4 ও D1-তে রৈখিক বিশ্লেষণ দ্বারা সমর্থিত হয়েছে। নিকটতম সহায়ক স্তর হবে 1.2955, পরবর্তী স্তর আরো 100 পয়েন্ট নীচে থাকবে।
    30% বিশেষজ্ঞ দ্বারা একটি বিকল্প পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে যারা বিশ্বাস করেন যে এই মুদ্রাজুড়ি 1.2955-1.321-এর চ্যানেলে এক তির্যক গমন করবে। নিকটতম প্রতিরোধক স্তর 1.3100-এর অঞ্চলে থাকবে;
  • USD/JPY মুদ্রাজুড়ি। এখানে বেশীরভাগ বিশেষজ্ঞগণ (75%) ডলারের শক্তিশালী হবার পক্ষে বলছেন। গত সপ্তাহের শেষে এই মুদ্রাজুড়ির পতন হওয়া সত্ত্বেও, এই মুদ্রাজুড়ি উত্থিত চ্যানেলর মাঝারি-মেয়াদের মধ্যে ছিল, যা মার্চের শেষে শুরু হয়েছিল, এবং বর্তমানে সহায়ক স্তরের রেখায় রয়েছে। এই মুদ্রাজুড়ির আশু লক্ষ্য হল 112,000-এর উচ্চতায় পৌঁছানো, চূড়ান্ত লক্ষ্য হল - 113.15।
    যদি মন্দাবাজারের সমর্থকরা বিজয়ী হন, এই মুদ্রাজুড়ি দক্ষিণদিশায় গমন করবে বলে আশা করা হচ্ছে। এক্ষেত্রে, সহায়ক স্তর 110.60, 110.30 এবং 109.75-এর স্তরে থাকবে। এটি অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে যখন একটি সাপ্তাহিক পূর্বাভাস থেকে গ্রীষ্মের শেষ পূর্বাভাস অবধি গমন করে, এরকম পরিস্থিতিতে বিশেষজ্ঞদের মধ্যে সমর্থকদের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে 25% থেকে 45%-এ গিয়েছে।
    রৈখিক বিশ্লেষণ দ্বারা সমঝোতামূলক সংস্করণের সুবিধার কথা বলা হয়েছেঃ প্রথমে 110.60-এর স্তরে পতন হওয়া, আর তারপরে 112.00-এর স্তরে উত্থান;

  • ক্রিপ্টোমুদ্রা। এলিয়ট তরঙ্গ তত্ত্বের সমর্থকরা জুলাই 25-এর সর্বোচ্চে BTC/USD ক্রিপ্টোজুড়ির এর 5ম উত্থিত তরঙ্গের শেষ দেখতে পারেন। এইভাবে, পরবর্তী পতন হল একটি আবেগ তরঙ্গ A, যার পরে বাজার একটি সংশোধিত তরঙ্গ B আশা করছে এবং 7,800-8,000-এর অঞ্চলে একটি উত্থান। আগস্টের প্রথম অর্ধের আশাপ্রদ লক্ষ্য হল 10,000$-এর উচ্চতায় নিয়ে যাওয়া।
    তবে, মূল সূচক – প্রবণতা এবং আয়তনের সূচক উভয়েই, এবং দোদুল্যমান সূচকরা – এখনো অবধি D1 ও W1-এর সময়সীমায় প্রবণতার পরিবর্তনের প্রতি এখনো অবধি কোন স্পষ্ট ইঙ্গিত দেয় নি। তাই, যদি 7,300$-এর উত্থান ভেঙ্গে পড়ে, এটি সম্ভব যে 6,700$-এর দিগন্তে পতন হওয়া সম্ভব। সর্বাপেক্ষা শক্তিশালী সহায়ক হল 6,000-6,100$-এর অঞ্চল – এটি হল সেই স্তর যেখানে লেনদেন করা এখনো অবধি অলাভজনক আছে।
    একটি তত্ত্বের মতে, 2018 সালে অনেক ক্ষেত্রে দরের পতনের একটি অন্যতম মূল কারণ হল লেনদেনকারীরা। তাদের ক্রমবর্ধমান সংখ্যার কারণে খননের সমাধানবিধির গুরুত্বপূর্ণ জটীলতা তৈরী হয়েছে। এবং, যেহেতু bitcoin-এর মূল্য হ্রাস পেয়েছে, এবং লেনদেনের লাভজনকতা হ্রাসপ্রাপ্ত হয়েছে, ক্রিপ্টো খামারের মালিকেরা মুদ্রার মজুদ সরিয়ে ফেলা শুরু করেছেন যা তারা মজুদ করেছিলেন, আর এইভাবে তারা নিজেদেরই এক খারাপ পরিষেবা প্রদান করছেন। 

 

-রোমান বাটকো, NordFX


« বাজার বিশ্লেষণ ও সংবাদ
প্রশিক্ষণ
গ্রহণ করুন
মার্কেটে নতুন? ব্যবহার করুন “শুরু করা যাক” বিভাগটি।
প্রশিক্ষণ শুরু করুন
প্রোমোশন এবং বোনাস
বিশেষ অফার এবং শর্তাবলী লাভজনক ট্রেডিং-এর জন্য।
আরও জানুন
আমাদের অনুসরণ করুন (সামাজিক নেটওয়ার্কগুলিতে)