জুলাই 8, 2018

-প্রথমে, গত সপ্তাহের পূর্বাভাসের বিষয়ে কয়েকটি কথা বলা যাকঃ

  • EUR/USD মুদ্রাজুড়ি। বেশীরভাগ বিশেষজ্ঞদের পূর্বাভাসই (55%) 1.1725-এর স্তরকে গণ্য করেছিল, যা এই সপ্তাহে এই মুদ্রাজুড়ি নিশ্চিতভাবে অর্জন করতে পারবে বলে ভাবা হয়েছিল। এবং তাই হয়েছিল। জার্মানী থেকে প্রাপ্ত ইতিবাচক অর্থনৈতিক ডেটার সাথে সাথে ইউএস-এর শ্রমবাজারের অনুজ্জ্বল পরিসংখ্যান (NFP-এর 12.7% পতন হয়েছিল), এবং আবারও আরেকবার ইউএস এবং চীনের মধ্যেকার উত্তপ্ত বাণিজ্য যুদ্ধ ইউরোর স্বপক্ষে গিয়েছিল। এর ফলে, এই মুদ্রাজুড়ি ধীরে ধীরে, এক পা এক পা করে, 1.1765-এর উচ্চতায় পৌঁছিয়েছিল। তারপরে সামান্য সংশোধন ঘটেছিল, এবং এই মুদ্রাজুড়ি 1.1745-এর স্তরে ট্রেডিং সপ্তাহটি শেষ করেছিল;
  • GBP/USD মুদ্রাজুড়ি। বিশ্লেষক এবং সূচকদের পরস্পরবিরোধী মতামতগুলিকে একত্রিত করে আমরা বরং ধারণা করেছিলাম যে এই মুদ্রাজুড়ির 1.3200-এর দিগন্ত বরাবর পূর্বদিকে গমন করা বজায় থাকবে, যার ফলে 1.3050-1.3325-এর পরিসরে ওঠানামা করবে। এবং, রেখচিত্রকে বিশ্লেষণ করে, এই পূর্বাভাস সঠিক বলে প্রমাণিত হয়েছিল। সোমবার রাত্রে 1.3200-এর লক্ষ্যমাত্রা থেকে শুরু করে, এই মুদ্রাজুড়ির প্রথমে 1.3093-এর স্তরে পতন হয়েছিল, তারপরে ঘুরে দাড়িয়েছিল এবং বৃদ্ধি পেয়ে 1.3285-এর উচ্চতায় পৌঁছিয়েছিল।
    ব্যাংক অফ্ ইংল্যাণ্ড থেকে আসা "কঠোর" বিবৃতিতে পাউণ্ড আবারও সহায়তা পেয়েছিল, এবং সুদের হারের বৃদ্ধির সম্ভাবনা বৃদ্ধি পেয়েছিল। গ্রেট ব্রিটেনের পরিষেবা ক্ষেত্রের বৃদ্ধিপ্রাপ্ত কার্যকলাপও ট্রেডারদের মনে আশা বৃদ্ধি করেছিল;        
  • USD/JPY মুদ্রাজুড়ি। এই মুদ্রাজুড়ির দর ঠিক করার যেই স্কেল নির্ধারিত হয়েছিল – একদিকে ব্যাংক অফ্ জাপানের অত্যন্ত নরম আর্থিক নীতি, এবং অন্যদিকে মহাদেশগুলির ক্রমবর্ধমান বাণিজ্য যুদ্ধ, যার ফলে আরো বেশী করে বিনিয়োগকারীরা এই দ্বীপদেশের মুদ্রাকে শেষ অবলম্বন হিসাবে বাছাই করছেন।
    এখান থেকে শুরু করে, বেশীরভাগ বিশেষজ্ঞরা, D1-তে রৈখিক বিশ্লেষণের সহায়তায় এই মুদ্রার দরের হারের এই ওঠানামা বজায় থাকা এবং তেজিবাজার ও মন্দাবাজারের মধ্যেকার টানাটানি আশা করেছিলেন। তাদের পূর্বাভাস অনুযায়ী, এই মুদ্রাজুড়ির প্রথমে 111.45-এর দিগন্তে উঠে যাবার কথা (এটি 111.15
    অবধি বৃদ্ধি পেয়েছিল) এবং তারপরে 110.00-এর সহায়তা স্তরে নেমে গিয়েছিল (প্রকৃতপক্ষে এই জুড়ি 110.27-এর স্তরে পৌঁছিয়েছিল)। তারপরে, ওঠানামার আরেকটি চক্র ফিরে এসেছিল, এবং এই মুদ্রাজুড়ি পাঁচদিনের সপ্তাহটিতে 110.46-এ শেষ করে 110.10-এর স্তরে স্থিত হবার প্রচেষ্টাকে নিশ্চিত করেছিল; 
  • ক্রিপ্টোমুদ্রা। জুন 30শের জোর উত্থানের পরে, BTC/USD ক্রিপ্টোজুড়ির বৃদ্ধি বজায় ছিল এবং এমনকি 6,780$-এ পৌঁছাতে সমর্থ হয়েছিল, যার পরে ঘুরে নীচের দিকে গিয়েছিল। মনে করুন তো গত সপ্তাহের সেই আশাবাদী পূর্বাভাস যাতে বলা হয়েছিল যে যদি bitcoin আত্মবিশ্বাসের সাথে 6,700$-এর স্তর অতিক্রম করতে পারে, তাহলে সেটি সেই দীর্ঘ-প্রতীক্ষিত প্রবণতা পরিবর্তনের পক্ষে এক পর্যাপ্ত শক্তিশালী সংকেত হবে। তবে, এক উল্লেখযোগ্য উত্থান হওয়া সত্ত্বেও, এই প্রতিরোধক স্তরের কোন প্রকৃত বিরাট সাফল্য হয় নি, এবং 6,600$-কে শেষ কয়দিনের মূল বিন্দু বলে গণ্য করা যেতে পারে।
    bitcoin-এর পথ অনুসরণ করে, Ethereum (ETH/USD) এক নিশ্চিত বৃদ্ধি দেখিয়েছিল, যদিও 485$-কে গত দু-মাসের নিচের চ্যানেলের উচ্চতর সীমা বলে গণ্য করা যেতে পারে। এবং এর থেকে যদি সজোরে ফিরে যায়, এই ক্রিপ্টোজুড়ির দর পতন হয়ে প্রতিটি মুদ্রায় 360 ডলারে নেমে যেতে পারে।
    Litecoin (LTC/USD) এবং Ripple (XRP/USD)-এর কথা বলতে গেলে, এগুলি পার্শ্ববর্তী চ্যানেলে গমন করেছিল এবং এই সপ্তাহের শুরুতে যেই স্থানে ছিল সেখানেই শেষ করেছিল।

 

-আসন্ন সপ্তাহের পূর্বাভাসের বিষয়ে, অনেক সংখ্যক বিশ্লেষকদের মতামতের সাথে সাথে প্রাযুক্তিক ও রৈখিক বিশ্লেষণের বিভিন্ন পদ্ধতির ভিত্তিতে কৃত পূর্বাভাসগুলিকে সংক্ষিপ্ত করে আমরা নিম্মলিখিত বক্তব্য রাখছিঃ

  • EUR/USD মুদ্রাজুড়ি। D1-তে রৈখিক বিশ্লেষণের সহায়তায় 60% বিশেষজ্ঞ মনে করেন যে মুদ্রাজুড়ির বৃদ্ধি বজায় থাকতে পারে, কিন্তু তা সামান্য পরিমাণেই হবে। মূল প্রতিরোধক স্তরকে 1.1800-তে ধরা হয়েছে। পরবর্তী প্রতিরোধক স্তর 50 পয়েন্ট উঁচুতে হবে। পরে, জুলাই মাসে, এই মুদ্রাজুড়ির আবারও 1.1500-এর স্তরে পতন হবে এবং এর পরেও আবারও ভাঙ্গন হতে পারে। H4 এবং D1-তে 15% দোদুল্যমান সূচকও এই পরিস্থিতির বিষয়ে সহমত আছে এই সংকেত দিয়ে যে এই মুদ্রাজুড়ির অধিক বিক্রয় হয়েছে।
    এই সপ্তাহে কোন নতুন " বৈপ্লবিক" খবরের আশা করা যাবে না। তবে, আমাদের বৃহস্পতিবার 12ই জুলাইয়ের দিকে মনোযোগ রাখতে হবে। এই দিনে ইউরোজোনের শিল্প উত্পাদনের বৃদ্ধির হারের উপরে ডেটা প্রকাশিত হওয়ার সাথে সাথে আমেরিকার উপভোক্তা মূল্যসূচকের পরিসংখ্যানও প্রকাশিত হবে। বিশ্লেষকদের মতে, ইউএস-এতে গত মাসব্যাপী মুদ্রাস্ফীতির হার ত্বরাণ্বিত হয়েছে, যার ফলে ফেড সুদের হারের আবারও বৃদ্ধি ঘটাতে পারে এবং, এর ফলে ডলারের পক্ষে অতিরিক্ত সমর্থন মিলতে পারে।  

  • GBP/USD মুদ্রাজুড়ির জন্য H4 এবং D1-তে রৈখিক বিশ্লেষণ 1.3225-এর সহায়ক স্তর থেকে ঘুরে যাওয়া সূচিত করছে, 1.3400-এর অঞ্চলে বৃদ্ধির এবং পরবর্তীকালে 1.3000-এর দিগন্তে প্রচণ্ড পতন সূচিত করছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, বর্তমান পরিস্থিতিতে এই মুদ্রাজুড়ি ইউকে-র থেকে আসা সংবাদের জন্য অপেক্ষা করছে।
    এইভাবে, মঙ্গলবার 10ই জুলাইয়ে মে মাসের শিল্প উত্পাদনের বৃদ্ধির হারের উপরে ডেটা প্রকাশিত হবে, এবং যদি দেখা যায় যে এপ্রিলের মন্দা সম্পূর্ণরূপে চলে গেছে, পাউণ্ডের মূল্য 1.3300-এর উপরে বৃদ্ধি পেতে পারে।
    যদি মার্ক কার্নে আবারও আসন্ন আর্থিক নীতিকে দৃঢ়্ করার বিষয়ে বক্তব্য রাখেন, ব্যাংক অফ্ ইংল্যাণ্ডের প্রধানের আরেকটি বক্তব্য বুধবার 11ই জুলাইয়ে ব্রিটিশ মুদ্রাকে সহায়তা করতে পারে।
    গ্রেট ব্রিটেন সরকারের কাজ পাউণ্ডের বিরুদ্ধে যেতে পারে। অদূর ভবিষ্যতে, একে অবশ্যই ইউ-তে ব্রেক্সিটের উপরে খসড়া চুক্তি প্রকাশ করতে হবে, এবং তাতে যদি দেশের অর্থনীতির কোন গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ না থাকে, পাউণ্ডের উপর আবারও গুরুতর চাপ পড়তে পারে;  
  • USD/JPY মুদ্রাজুড়ি। ইউএস এবং চীনের মধ্যেকার বাণিজ্য যুদ্ধ আবারও পুরোদমে শুরু হয়েছে। 6ই জুলাইয়ে, চীন থেকে আমদানী করা সামগ্রীর উপরে 25% শুল্ক বৃদ্ধির প্রবর্তন হতে চলেছে। এটি আশা করা হচ্ছে যে ওয়াশিংটন আরো 200 বিলিয়ন ডলারের উপর শুল্ক আরোপ করতে চলেছে, যার প্রত্যুত্তরে চীন ইউএস ট্রেজারী উপকরণ বিক্রির হুমকি দিয়ে রেখেছে।
    এই পটভূমিকায়, যেমন ইতিমধ্যে উল্লেখিত হয়েছে, নিরাপদ আশ্রয়ের মুদ্রা হিসাবে ইয়েনের চাহিদা ক্রমশঃ বৃদ্ধি পাচ্ছে। গত চার মাসে USD/JPY মুদ্রাজুড়ির দর প্রায় 6.7% বৃদ্ধি পেয়েছে। আসন্ন সপ্তাহের কথা বলতে গেলে, বেশীরভাগ বিশ্লেষকগণ (60%) মনে করেন যে এই মুদ্রাজুড়ির বৃদ্ধি 111.40-এর স্তর অবধি বজায় থাকবে। বাকি 40% বিশ্লেষকের মতে, এই মুদ্রাজুড়ি এক তির্যক গমনের দিকে যাচ্ছে এবং 109.35-110.80-এর অঞ্চলে স্থিত হবে। পরবর্তী সহায়ক স্তর 108.65-তে থাকবে;
  • ক্রিপ্টোমুদ্রা। অদূর ভবিষ্যতে বড় প্রশ্ন দেখা দিচ্ছে bitcoin কি তার উত্থান বজায় রাখতে পারবে না নীচে নেমে আসবে। বর্তমানে, এটি স্পষ্টভাবে 7,000$-এর লক্ষ্যমাত্রা অতিক্রম করার প্রতি নজর দিচ্ছে, এবং ক্রেতারা এখনও পর্যন্ত বাজার পরিত্যাগ করছেন না। তবে, এমনকি এখনও সূচকরা সংকেত দিচ্ছে যে এই ক্রিপ্টোমুদ্রার অধিক বিক্রয় হয়েছে, এবং যদি কোন নেতিবাচক খবর আসে, এই প্রবণতা খুব তাড়াতাড়ি তেজিবাজার থেকে মন্দাবাজারের দিকে ঘুরে যেতে পারে এবং এই ক্রিপ্টোজুড়িকে জুনের কম দরে ফিরিয়ে দিতে পারে।
    অপরদিকে, অনেক বিশেষজ্ঞ BTC/USD ক্রিপ্টোজুড়ির বৃদ্ধি বজায় থাকার পূর্বাভাস দিচ্ছেন এই অনেকগুলি কারণের জন্য যেমন অনেক বিনিয়োগকারীদের altcoins-এ হতাশ হয়ে এই ক্রিপ্টোমুদ্রায় ফিরে আসা, দীর্ঘকাল ধরে খারাপ খবরের অনুপস্থিতি, এবং আপাতদৃষ্টিতে বিপরীত মনে হলেও, কম পরিমাণে ট্রেডিং হওয়ার কারণেও। পরেরটির অর্থ হল যে বেপরোয়ারাও ময়দান ছেড়ে গেছেন, এবং যারা এই ক্রিপ্টোমুদ্রাগুলি বিক্রি করতে চান, তাদের সংখ্যা অত্যন্ত কম। শুধুমাত্র তারাই বাজারে রয়েছেন যারা, যেই পরিস্থিতি আসুক না কেন, তারা তাদের bitcoin মুদ্রাগুলি সম্পূর্ণ লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা পর্যন্ত অথবা সম্পূর্ণ পতন অবধি ধরে রাখার জন্য প্রস্তুত রয়েছেন। এই কারণে আশাবাদীরা বলতে শুরু করেছেন যে এই বছরের শেষে BTC-এর মূল্য অন্ততপক্ষে 50,000$ হবে (আর্থার হেস্, BitMEX), অথবা অন্ততপক্ষে 25,000$ পর্যন্ত (টম লি, FundStrat)।  

 

-রোমান বাটকো, NordFX


« বাজার বিশ্লেষণ ও সংবাদ
প্রশিক্ষণ
গ্রহণ করুন
মার্কেটে নতুন? ব্যবহার করুন “শুরু করা যাক” বিভাগটি।
প্রশিক্ষণ শুরু করুন
আমাদের অনুসরণ করুন (সামাজিক নেটওয়ার্কগুলিতে)