জানুয়ারী 18, 2020

প্রথমে, গত সপ্তাহের ঘটনাগুলোর একটা পর্যালোচনা:

  • EUR/USD 29শে নভেম্বর, 2019 থেকে শুরু করে, এই জুটি ঊর্ধ্বমুখী চ্যানেল বরাবার এগিয়ে যাচ্ছিল। 31শে ডিসেম্বরে এটি এই চ্যানেলের ঊর্ধ্ব সীমা 1.1240-এ পৌঁছে যায়, আর তারপর অভিমুখ বদলায় এবং 08ই জানুয়ারী তারিখে এটি এই চ্যানেলের নিচের সীমা 1.1225-কে ভেঙ্গে দেয়। "এটি কি তার সীমাগুলির মধ্যে ফিরবে?"– গত সপ্তাহে আমরা এই প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করেছিলাম, যার উত্তরে বিশেষজ্ঞদের একটা বড় অংশ (60%) কঠিন "না"-এ জবাব দিয়েছিলেন। আরা তারা সঠিক প্রমাণিত হয়েছেন: 16ই জানুয়ারী, বৃহস্পতিবার অবধি, বুল এটা করার চেষ্টা করেছিল, কিন্তু তারপর তাদের শক্তি কমে আসে এবং এই জুটির খাঁড়া পতন ঘটে।
    এই বুল বা ঊর্ধ্বগতিগুলিকে এমনকি মার্কিন ও চীনের মধ্যেকার বাণিজ্যচুক্তির "প্রথম পর্যায়” সম্পন্ন হওয়ার মতো বিষয়টিও কোন সাহায্য করতে পারেনি। এই নথি অনুসারে, বেইজিংয়ের তরফে আগামি দু’বছরের মধ্যে মার্কিন পণ্য ও পরিষেবা ক্রয় আনুমানিক $200 বিলিয়ন বাড়ানোর ব্যাপারে সম্মতি দেওয়া হয়েছে, এবং ওয়াশিংটন, তাদের তরফে, চীন থেকে আমদানি করা $120 বিলিয়ন মূল্যের উপর প্রদেয় শুল্ক 7.5% কমিয়ে আনার এবং নতুন করে কোন শুল্ক না আরোপ করার ব্যাপারে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।
    এটি মনে রাখা উচিৎ যে, সাধারণত, এই ঘটনাটি ইতিমধ্যেই বাজারের বিবেচনায় এসে গেছে, কিন্তু তা সত্ত্বেও মার্কিন শেয়ার বাজার কিছুটা উপরে উঠেছে এবং ডলারেরও খানিকটা পতন ঘটেছে। বিনিয়োগকারীরা তাদের সম্পদ সংস্কারের কাজে লেগে রয়েছেন, যেখানে তারা টাকার তুলনায় শেয়ারকেই পছন্দ করছেন।
    তবে, ডলারের ও EUR/USD জুটির পতন শীঘ্রই থেমে যায় ডিসেম্বর মাসে ECB-র সভার কার্যবিবরণী ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের খুচরো বিক্রির ডেটা প্রকাশিত হওয়ার কারণে।
    প্রথম ক্ষেত্রে, ইউরোপের মহতি-নিয়ামকের পরিচালনবর্গ ঘোষণা করে তারা গুরুত্বপূর্ণ সুদের হারগুলিকে ততক্ষণ অবধি বাড়াবে না যতক্ষণ না মুদ্রাস্ফিতীর হার 2%-এ পৌঁছাচ্ছে। অধিকন্তু, ECB-র তরফে বর্তমান হার শূন্যের স্তর থেকে থেকে ঋণাত্মক অঞ্চলে সম্ভাবনাকেও উড়িয়ে দেওয়া হয়নি।  দ্বিতীয় কারণটির ক্ষেত্রে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে খুচরো কারবারের পরিমাণ -0.1% থেকে বেড়ে + 0.5% হয়েছে, এবং যেমনটি আপনার জানেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে উপভোক্তাদের খরচের পরিমাণ তাদের GDP-র 65%-এরও বেশি। ফলত, ডলারের সাপেক্ষে ইউপো তার অবস্থান হারাতে থাকে, এবং এই জুটি তার কারবার সময়কাল একটি শক্তিশালী অবলম্বন/প্রতিরোধ অঞ্চল 1.1100-এ গিয়ে শেষ করে, যার স্তর 1.1090;
  • GBP/USD এই জুটি EUR/USD জুটির মতোই গতিবিধ দেখিয়েছিল, কিন্তু স্বভাবতই, অনেক বেশি বড় স্কেলে। তাহলে, গোটা সপ্তাহ জুড়ে ERU/USD জুটির উচ্চ ও নিম্ন স্তরের তফাৎ যদি 85 পয়েন্টের কিছু বেশি থেকে থাকে, এই মান ছিল ব্রিটিশ মুদ্রার উচ্চ স্তরের দ্বিগুণ।
    17ই জানুয়ারীতে পাউন্ডের সক্রিয় স্কেলের কারণ ছিল ডিসেম্বরে UK-এর খুচরো বিক্রির রিপোর্ট। মাসিক সূচক ছিল ঋণাত্মক অঞ্চলে, এবং বার্ষিক সূচক ছিল পূর্বাভাস দেওয়া মানের থেকে তিনগুণ কম। ফলত, সপ্তাহের শেষে, পাউন্ড 09ই জানুয়ারীর নিম্ন স্তরে পড়ে যায়, এবং পাঁচ দিনের সময়কালকে 1.3015-এ শেষ করে - ঠিক সেইখানে যেখানে, বেশিরভাগ বিশেষজ্ঞের মতে, এই জুটির অন্তর্বর্তী পিভোট পয়েন্ট (1.3000-1.3050) অবস্থিত;
  • USD/JPY বিশেষজ্ঞদের 25% এই জুটির 110.70-র স্তরে উঠে আসার পক্ষে মত দিয়েছেন, যাদেরকে অসিলেটরদের 75% এবং প্রবণতা সূচকগুলির 85% সমর্থন করেছে। এই জুটি সত্যিই উপরে ওঠে, কিন্তু তাদের বৃদ্ধি 110.30-এ এসে থেমে যায়। এই সপ্তাহে ডলারের নিরীখে ইয়েম মাত্র 80 পয়েন্ট মতো পড়া সত্ত্বেও, এটিকে একটি গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা হিসেবে বিবেচনা করা যেতে পারে, যেহেতু এটি তার মনস্তত্ত্বিক স্তর 110.00-কে অতিক্রম করতে পেরেছে। মনে করে দেখুন যে, 29.000-এর অঙ্ক পার করার পর ডাউ জোন্স সূচক আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে উপরে উঠেছিল, এবং এর সম্ভাবনা রয়েছে যে, একই জিনিস এই USD/JPY জুটির ক্ষেত্রেও ঘটবে;
  • ক্রিপ্টোকারেন্সি প্রতি বুধবার, NordFX ব্রোকারেজ কোম্পানির বিশেষজ্ঞরা NordFX-এর ফেসবুক পেজ-এ, টুইটার চ্যানেলে এবং অন্যান্য সামাজিক নেটওয়ার্কগুলিকেতে ক্রিপ্টোবাজারের সাপ্তাহিক পর্যালোচনা প্রকাশ করেন। ওই রকমই আরেকটি পর্যালোচনায় গত বুধবার, 15 জানুয়ারী তারিখে, এই পরামর্শ দেওয়া হয় যে, ফেব্রুয়ারি মাসে BTC-র দাম 9,5 হাজার ডলারে উঠে আসার সবরকম সম্ভাবনা রয়েছে। সোনার সঙ্গে বর্ধিত পারস্পরিক সম্পর্ক ও সেই সঙ্গে অন্যান্য বাহ্যিক কারণগুলির জন্য মূলক ক্রিপ্ট মুদ্রায় প্রতি মাসে $1000 করে যুক্ত হওয়ার সুযোগ থাকবে। এই সব কারণগুলির মধ্যে, প্রথমত, বিটকয়েনকে একটি নিরাপদ আশ্রয়স্থল হিসেবে ব্যবহারের বিষয়টিকে খেয়াল রাখা উচিৎ। এই ঘটনার একটি স্পষ্ট প্রমাণ হল ইরানকে ঘিরে যে টানাপোড়েন চলছে তার প্রেক্ষাপটে এই প্রধান ক্রিপ্টমুদ্রার দর বৃদ্ধি পাওয়া।
    গত সপ্তাহের মঙ্গলবার শিকাগো মার্কেন্টাইল এক্সচেঞ্জ একটি নতুন আর্থিক প্রকরণের সফল প্রবর্তনের ঘোষণা করে, বিটকয়েনের অপশন, যা BTC/USD জুটির দরকে গত 17ই জানুয়ারী, শুক্রবার, উল্লেখযোগ্য স্তর $9,000-এ পৌঁছানোর সুযোগ করে দেয়। এইভাবে, গত দুই সপ্তাহ ধরে এই জুটির বৃদ্ধি 22% ছাড়িয়ে গেছে।
    প্রধান ক্রিপ্টোমুদ্রার উন্নতিতে অল্টকেয়নগুলিও ভাল ফল করে। রিপল (XRP/USD)-এ 25%, এথিরিয়াম (ETH/USD)-এ 30%-এর বৃদ্ধি দেখা গেছে, এবং এদের মধ্যে সবচেয়ে অসাধারণ বিষয় ছিল লিটকয়েন (LTC/USD)-এর শক্তিবৃদ্ধি: এর বৃদ্ধির হার ছিল 50%-এর কাছাকাছি। ক্রিপ্টোবাজারের মোট মুলধন 14.5% বেড়ে $245 বিলিয়নে পৌঁছে যায়।

 

আগামি সপ্তাহের পূর্বাভাসের ক্ষেত্রে, একাধিক বিশেষজ্ঞদের মতামতগুলোকে, ও সেই সঙ্গে প্রযুক্তিগত ও গ্রাফিক্সভিত্তিক বিশ্লেষণের বহুবিধ পদ্ধতির ভিত্তিতে করা পূর্বাভাসগুলোকে একত্রিত করে, আমরা নিম্নোক্ত কথাগুলো বলতে পারি:

  • EUR/USD পরপর তিন সপ্তাহ ধরে, এই জুটি নিচে নেমে চলেছে, ইউরো প্রায় 240 পয়েন্ট পড়েছে। সূচকগুলির একটা বিরাট অংশ এখন লালা, শুধুমাত্র H4-এ নয়, বর্ং D1-এও। H4-এর উপরের অসিলেটরগুলির মধ্যে, 75%, D1-এর উপরেরগুলোর মধ্যে 65%, প্রবণতার সূচকগুলির মধ্যে H4-এর উপরের 100% এবং D1-এর উপরের 90% দক্ষিণ দিকে নির্দেশ করছে। নিকটতম অবলম্বন হল 1.1065, এবং বিয়ার-এর লক্ষ্য হল 1.1000।
    একইসঙ্গে, অসিলেটরগুলির মধ্যে কয়েকটি ইতিমধ্যেই এই জুটির মাত্রাতিরিক্ত বিক্রির সংকেত দিয়ে দিয়েছে। বিশেষজ্ঞদের 60%-ও উপর দিকেই তাকিয়ে। তাদের মতে, এই জুটি তাদের অন্তর্বর্তী ঊর্ধ্বমুখী চ্যানেলে ফিরে যাবার চেষ্টা আরেকটা চেষ্টা করবে, যা 2019-এর ডিসেম্বর মাসের গোড়ার দিকে শুরু হয়েছিল। নিকটতম প্রতিরোধ হল 1.1150। লক্ষ্যগুলি হল 1.1200 এবং 1.1240; মূলধন বেরিয়ে গিয়ে শেয়ার বাজারে চলে যাবার বিষয়টি এই জুটির বৃদ্ধিতে সাহায্য করে থাকতে পারে, যাকে আবার মার্কিন-চীন বাণিজ্যিক সম্পর্কের টানাপোড়েন কমে আসার বিষয়টি প্ররোচিত করে থাকতে পারে। এই বিষয়টি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মন্দার সম্ভাবনাকে 24% কমিয়ে দিয়েছে, যা গত আট মাসে সবচেয়ে কম।
    20শে জানুয়ারী, সোমবার, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ছুটির দিন, কিন্তু এটা আবার চীনের জন্য সেই দিন যেদিন পিপলস ব্যাংক অব চায়না সুদের হার সম্পর্কে তাদের সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করবে, যা বর্তমানে 4.15% রয়েছে। সেই সঙ্গে, অন্যান্য আরও ঘটনাও রয়েছে। 21শে জানুয়ারী, মঙ্গলবার, জার্মানির ব্যবসায়িক মনোভাবের সূচক প্রকাশিত হবে। পূর্বাভাস অনুযায়ী, এটি 10.7 থেকে পড়ে 4.3-তে চলে আসতে পারে, যা ইউরোপের মুদ্রাগুলিকে কিছুটা দুর্বল করতে পারে। বৃহস্পতিবার, সুদের হারের ব্যাপারে ECB-র সিদ্ধান্ত ঘোষণা করার দিন, এবং তার সঙ্গে ইউরোপের নিয়ামক সংস্থাগুলির তরফে একটি সাংবাদিক সম্মেলনও করার কথা। আর 24শে জানুয়ারী, শুক্রবার, আমরা জার্মানি ও সামগ্রিকভাবে গোটা ইউরোজোন উভয়েরই ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ডের অনুমিত সূচকগুলি প্রকাশের জন্য অপেক্ষায় রয়েছি;

  • GBP/USD দুটি ম্যাক্রো সূচক মিলে UK-এর অর্থনীতির গোটা ছবিটা অনুমান করতে সাহায্য করবে, যার একটা হল ILO-র বেরোজগারির হার, যা আগামি মঙ্গলবার প্রকাশিত হবে, এবং মার্কিন ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ডের সূচক, যা আগামি 24শে জানুয়ারী, শুক্রবার প্রকাশিত হতে যাচ্ছে। তবে, আশু Brexit-এর ঘটনার সুবাদে তাদের এই জুটির উপর কোনরকম গুরুতর প্রভাব তৈরির তেমন কোন সম্ভাবনা নেই।
    এই জুটি গত সপ্তাহে অন্তর্বর্তী পিভোট পয়েন্ট জোন 1.3000-1.3050-এ তাদের সপ্তাহটা শেষ করেছিল। এই পূর্বাভাস লেখার সময়, যেমনটি ইউরো-র ক্ষেত্রে হয়েছে, বিশেষজ্ঞদের 60% এর বৃদ্ধির এবং 40% এর পতনের প্রত্যাশা করছেন। সূচকগুলিকে, বিশেষকরে, অসিলেটরগুলিকে, খুবই অস্থির দেখাচ্ছে। D1-এর উপর গ্রাফিক্স সহযোগে করা বিশ্লেষণ প্রথমে এই জুটির 1.3120-এ উত্থান দেখাচ্ছে, এবং তারপর 1.2770-এর হরাইজনে পতনের ইঙ্গিত দিচ্ছে।
    অবলম্বনের স্তরগুলি হল 1.2955, 1.2900, 1.2825 এবং 1.2770। প্রতিরোধের স্তরগুলি হল 1.3120, 1.3210 এবং 1.3285।
  • USD/JPY এখানে, সবকিছুই ঊর্ধ্বমুখী (বুল) গতিগুলির সুবিধার দিকে ইঙ্গিত করছে, যারা এই জুটিকে 110.00 অঙ্কের উপরে তুলে ধরে রাখতে এবং একে এই সীমারেখা থেকে যতটা সম্ভব উঁচুতে ধরে রাখতে চেষ্টা করবে। এইভাবে, বিশ্লেষকদের 55%, অসিলেটরদের 70%, প্রবণতা সূচকগুলির 95%, ও সেই সঙ্গে H4 ও D1-এর উপর গ্রাফিক্স সহযোগে করা বিশ্লেষণগুলি এই জুটির ক্রমাগত বৃদ্ধির ইঙ্গিত দিচ্ছে। নিকটবর্তী শক্তিশালী প্রতিরোধের স্তর হল 110.75 এবং তার পরেরটা হল 100 পয়েন্ট উঁচুতে।
    বিশেষজ্ঞদের 15% একটি নিরপেক্ষ পূর্বাভাস দিয়েছেন এবং 30% এই জুটির পতনের পক্ষে মত দিয়েছেন। এই জুটির মাত্রাতিরিক্ত ক্রয়ের সবচেয়ে বেশি সংখ্যক সংকেত D1-এর উপরের অসিটলেটরগুলি দিয়েছে। প্রধান অবলম্বনের স্তরটি হল 109.70। সেটা যদি ভাঙ্গে, তাহলে এই জুটি পড়ে গিয়ে 109.00-র জোনে এবং তারপর 108.40-র হরাইজনে নেমে আসবে। 06-08ই জানুয়ারীর 107.65-107.75-এর জোনের তলানিতে চলে আসার সম্ভাবনা এখনও থেকে গেছে;
  • ক্রিপ্টোকারেন্সি অবশেষে, এটা ঘটল: ক্রিপ্টো ফিয়ার অ্যান্ড গ্রিড ইন্ডেক্স ধ্রুবরেখা (ইকুয়েটর) অতিক্রম করল এবং 54-এ উঠে এলো, সেই জোনের দিয়ে এগিয়ে গিয়ে যাকে "গ্রিড” বলে। সেটা কি ভাল না খারাপ? সূচক যারা নির্মাণ করেন তাদের মতে, এই মুহূর্তে কোন সংক্ষিপ্ত সময়ের পজিশন খোলা খুবই বিপজ্জনক হবে। আর দীর্ঘকালের ক্ষেত্রে কী?
    বিশ্লেষকদের 65% বিশ্বাস করেন যে, BTC/USD জুটির ঊর্ধ্বমুখী গতির শক্তি এখন ফুরিয়ে যায়নি এবং তা $9,000-10,000-এর জোনে তাদের পা রাখতে সমর্থ হবে।
    আরেকটি বিকল্প দৃষ্টিভঙ্গিকে বিশেষজ্ঞদের 35% সমর্থন করেছেন। এ ব্যাপারে সম্মতি জানিয়ে যে, পরিস্থিতিটা কিছুটা 2017-র অনুরূপ, তারা এই ঘটনার দিকে দৃষ্টি আকর্ষিত করেছেন যে, জুন 2019 থেকে শুরু করে আমরা পতনের এক গুরুতর উচ্চতা দেখে আসছি। 26শে জুনে $13,765, 10ই জুলাইয়ে 26, $13,170, 06ই আগস্টে $12,320, 26শে অক্টোবরে $10,480। আর এটা সম্ভব যে, পরবর্তী স্থানীয় উচ্চতাটা $9,000 হবে, যার পর আরেকটা পতন আসন্ন।
    তবে এখনকার মতো, বাজারে পূর্ণমাত্রায় আশার আলো ছড়িয়ে আছে, এবং ক্রিপ্টোবাজার নিয়ে উৎসাহী সমস্ত ধরনের লোকেদের ভবিষ্যদ্বাণী কল্পনীয় ও অকল্পনীয় সমস্ত রেকর্ড ভেঙ্গে চলেছে। যার মধ্যে সবচেয়ে বিনয়ী পূর্বাভাস দিয়েছে ফান্ডসট্র্যাট গ্লোবাল অ্যাডভাইজর্স নাম একটি বিশ্লেষণকারী সংস্থা, যারা বলেছে, আগামি বছরে এর প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে যে, বিটকয়েন তার বিনিয়োগকারীদের 100% লাভের মুখ দেখাতে পারে। ফান্ডসট্র্যাট-এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা টম লি-এর মতে, এই প্রথম ক্রিপ্টোকারেন্সির দাম বাড়ার ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যে পূর্বাভাসগুলির অবদান থাকবে সেগুলি হল এর অর্ধেক হয়ে যাওয়া, ভূ-রাজনৈতিক ঝুঁকি এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি নির্বাচন।
    সবচেয়ে "ফাঁকা" পূর্বাভাস দিয়েছিলেন ব্লকস্ট্রিম-এর CEO অ্যাডাম ব্যাক। তার বিশ্বাস, বিটকয়েনের দাম $100 হাজার বা এমনকি $10 মিলিয়ন হওয়ার স্বপ্ন বাস্তবতা থেকে খুব বেশি দূরে নেই। ব্যাক হল ফিনে-এর ধারণার উপর মন্তব্য করেছেন যিনি সাইফারপাঙ্ক আন্দোলনের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় প্রতিনিধি, যাকে স্যাটোশি নাকামোতের পর বিটকয়েনের দ্বিতীয় স্রষ্টা হিসেবে ভাবা হয়। ফিনে, "ভাবনার পরীক্ষা-নিরীক্ষা হিসেবে” বিটকয়েনকে বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী প্রদানের মাধ্যম হিসেবে ভেবে দেখার পরামর্শ দিয়েছেন। "এই মুদ্রার মোট মূল্য গোটা বিশ্বের সমস্ত সম্পদের মূল্যের সমান হওয়া উচিৎ। গোটা বিশ্বের সমস্ত পরিবারগুলির বর্তমান সম্পদের মূল্য হবে, যেমনটি আমি হিসেব করে দেখেছি, $100 থেকে $ 300 ট্রিলিয়নের মধ্যে। যদি 20 মিলিয়ন কয়েন থাকে, তাহলে তাদের প্রতিটির মূল্য হবে আনুমানিক $10 মিলিয়ন," ফিনে লিখেছিলেন। ব্যাক উল্লেখ করেছেন যে, ডলারের মুদ্রাস্ফীতির ক্রমাগত বৃদ্ধির কারণে, "তা হওয়া অনুমানের থেকেও কাছে রয়েছে।" কিন্তু কতটা কাছে সে ব্যাপারে এই ক্রিপ্টো ভবিষ্যদ্বক্তা নির্দিষ্ট করে কিছু বলেননি।

 

রোমান বুটকো, NordFX

 

দ্রষ্টব্য: এই বিষয়বস্তুটিকে বিনিয়োগের সুপারিশ অথবা আর্থিক বাজারগুলিতে কাজ করার দিকনির্দেশ হিসেবে বিবেচনা করা উচিৎ হবে না: এগুলির উদ্দেশ্য শুধুমাত্র তথ্য সরবরাহ করা  আর্থিক বাজারগুলিতে কেনা-বেচা করা ঝুঁকিপূর্ণ কাজ এবং তা লগ্নীকৃত অর্থ পুরোপুরি হারানোর কারণ হতে পারে


« বাজার বিশ্লেষণ ও সংবাদ
প্রশিক্ষণ
গ্রহণ করুন
মার্কেটে নতুন? ব্যবহার করুন “শুরু করা যাক” বিভাগটি।
প্রশিক্ষণ শুরু করুন
আমাদের অনুসরণ করুন (সামাজিক নেটওয়ার্কগুলিতে)