জানুয়ারী 9, 2017

-2016 সালটি অনেক ঘটনার জন্য উল্লেখযোগ্য যা ব্যাপকভাবে আর্থিক বাজারকে প্রভাবিত করেছে। সর্বপ্রথমে থাকবে অবশ্যই ব্রেক্সিট, ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমেরিকান রাষ্ট্রপতি হিসাবে নির্বাচন, এবং ইউরোপীয়ান ইউনিয়নের সম্ভাব্য ভাঙ্গন এক ক্রমাগতঃ গুজব যার ফলে বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ মুদ্রাগুলির শক্তির ভারসাম্যের লড়াইয়ে এক গুরুতর পরিবর্তন এসেছে।

তাহলে 2017-এর নববর্ষে পাউণ্ড, ডলার, ইউরো এবং ইয়েনের বিষয়ে কি আশা করা উচিত হবে?

-ইউরোপীয়ান মুদ্রার বিষয়ে পূর্বাভাস বরং হতাশজনক থাকছে। ইউরোপীয়ান সেন্ট্রাল ব্যাংক (ECB)-এর ডেটা উদ্ধৃত করে ওয়াল স্ট্রীট জার্নাল অনুমান করছে যে 1999 সালে ইউরোর প্রচলনের পর থেকে ইউরো অঞ্চল থেকে মূলধনের বর্হিগমন সর্বোচ্চ পর্যায়ে গিয়ে পৌঁছিয়েছে, এবং এই মুদ্রার গত 13 বছরের মধ্যে সবচেয়ে অধোগতি হয়েছে।

-বিশ্লেষকদের কথানুযায়ী, ইসিবি-র সুদের হারের বৃদ্ধির কোন সম্ভাবনাই নেই, অপরদিকে ইউএস ফেডারেল রিজার্ভ (ফেড)যে ডিসেম্বর 2016-এর মাঝামাঝি শুধুমাত্র যে এই হারের 0.25% বৃদ্ধি করেছিল তাই নয়, 2017 সালের পুরো বছরে এরকম তিনবার বৃদ্ধির পূর্বাভাসও দিয়েছে।

-সিটিগ্রুপ বিশেষজ্ঞরা আশা প্রকাশ করছেন যে ইউএস মুদ্রার বৃদ্ধির হার বজায় থাকবে। এছাড়াও, ব্যাংকের কৌশলীবিদ টড এলমার ব্লুমবার্গে এক সাক্ষাতকারে বলেছেনঃ “বাজারে যা প্রত্যাশা রয়েছে আমরা ডলারের ক্ষেত্রে তার থেকে বেশী দ্রুত বৃদ্ধিও দেখতে পারি।" এর সর্বপ্রথম কারণ হতে পারে যে প্রারম্ভিকভাবে যেমন আশা করা হয়েছিল, ফেড তার থেকে আরো দ্রুত হারের বৃদ্ধি ঘটাবে। ফেডারেল রিজার্ভের প্রধান জ্যানেট ইয়েলেন মন্তব্য করেছেন যে হারের বৃদ্ধি হল আমেরিকান অর্থনীতির উপর আস্থার এক প্রতিফলন, এবং রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ডের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী করের ছাড়ের সম্ভাব্য বৃদ্ধির বিষয়টি ফেড হিসাবের মধ্যে রাখছে।   

-নর্দএফএক্স ব্রোকারেজ সংস্থার অগ্রগণ্য বিশ্লেষক জন গর্ডন বলেছেন, ”এটি সম্ভব যে ইউরোপের বিভিন্ন আসন্ন ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে, ব্রেক্সিটকে একটি আপদের মত লাগবে। কোন কোন কারণের জন্য, ঝুঁকিগুলিকে চিহ্নিত করতে জার্মানী এবং ফ্রান্সের আসন্ন নির্বাচন এবং অভিবাসন সমস্যার কথা বলা হচ্ছে। কিন্তু, প্রকৃতপক্ষে ইউরো যে আসন্ন বিপদের কথা ভাবছে এগুলির মধ্যেই তা সীমাবদ্ধ থাকবে না। আমি অন্ততঃপক্ষে আরো ছয়-সাতটি কারণ দেখাতে পারি।” 

-”কেউ কেউ সহসা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে গ্রীসের অর্থনৈতিক দুর্দশা 2015 সালের গ্রীষ্মকালে এক চূড়ান্ত অবস্থায় পৌঁছিয়েছিল। কিন্তু এটা ঠিক নয়, এটা শুধু বলা যেতে পারে যে 2016 সালের শেষে গ্রীক নাগরিকদের করের ঋণের বোঝা দেশের পক্ষে আকাশচুম্বী অংকে পৌঁছিয়ে 94.2 বিলিয়ন ইউরোতে দাড়িয়েছে। এটি খুবই সম্ভব যে শীঘ্রই এটি বিলিয়ন ইউরোতে গিয়ে পৌঁছাবে আর এর বিপরীত ইতিবাচক ভূমিকার বিষয়ে কোন চিন্তা করার স্থান নেই।”      

-”গ্রীসের মতই একই ধরণের আর্থিক সমস্যা ইতালি এবং স্পেনেও দেখা দিতে পারে। শুধু সেগুলি, গ্রীসের থেকে অন্যরকমের, এই দেশগুলির কিছু নিজ নিজ অঞ্চলের জনসংখ্যার মধ্যে বিচ্ছিন্নতাবাদী মনোভাব আরো তীব্রভাব ধারণ করেছে। ইতালিতে ডিসেম্বরের গণভোট বা স্পেনে মাদ্রিদ এবং ক্যাটালান কর্তৃপক্ষের মধ্যে সংঘাতের কথা মনে করুন।”

-”অস্ট্রিয়ার চরম ডানপন্থীদের উত্থানকেও এর মধ্যে আনুন, হাঙ্গেরীর অভিবাসন নীতি এবং তুর্কি ও ইউরোপের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি, যার পিঠোপিঠি রাষ্ট্রপতি এরডোগ্যান আবার একবার রাশিয়ার সাথে সম্পর্ক উন্নতি করা শুরু করেছেন।”

-নর্দএফএক্স-এর বিশ্লেষক বলতে থাকেন, ”কেবলমাত্র এর সাথে আমরা এই বছরে ইউ (EU) দেশগুলির পূর্বে নির্ধারিত স্থানীয় বা পার্লামেন্টের নির্বাচনগুলিকে হিসাবের মধ্যে গণ্য করে আমরা বুঝতে শুরু

-“কয়েক মাস আগেও যেসমস্ত গুরুত্বপূর্ণ মুদ্রা লেনদেনকারীরা ইউরোর বিষয়ে তাদের আশা ধরে রেখেছিলেন, তারা ইতিমধ্যেই তাদের আগেকার পূর্বাভাস সংশোধন করে তা অধোমুখী বলে অভিমত জানিয়েছেন।“

-ব্রিটিশ সংস্থা আইএইচএস মার্কিটের মতে, 2017 সালের শেষে ইউরো মুদ্রা ডলারের সাথে সমতা নিয়ে আসবে। রয়্যাল ব্যাংক অফ্ স্কটল্যাণ্ডের বিশ্লেষকরা এই মতের সাথে একমত হয়েছেন। তারা বলছেন যে প্রতি মাসে 80 বিলিয়ন ইউরো সম্পদ কেনার ইসিবি কর্মসূচির সম্প্রসারণের ফলে, ইইউআর/ইউএসডি (EUR/USD) মুদ্রাজুড়ি 1.00-1.10–এর পরিসরে থাকতে সমর্থ হবে। কিন্তু বৃহত্ বিনিয়োগ ব্যাংক গোল্ডম্যান স্যাচ এই পূর্বাভাসে সমতার থেকে 1.00 থেকে 0.90 কম হবে বলে অভিমত পোষণ করছে।   

-কিন্তু যদি আমরা ব্রিটিশ মুদ্রার কথা বলি, ব্রেক্সিট সত্ত্বেও (অথবা মূলতঃ এই কারণেই), এর ভবিষ্যত ইউরোর থেকে বেশী আশাব্যঞ্জক দেখাচ্ছে।

-জেপি মরগ্যানের ব্যাঙ্কার্স মনে করেন যে একক বাজারে প্রবেশের বিষয়ে ইউকে সরকারের কার্যকলাপের উপর নির্ভর করে জিবিপি-র হার বৃদ্ধি বা হ্রাস পেতে পারে। জেপি মরগ্যানের পল মেগেয়েসি বলেন, ”পাউণ্ড মাঝে মাঝেই ওঠানামার মুখোমুখী হচ্ছে এবং রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে অনেকবারই এর অভিমুখের পরিবর্তন হতে পারে।” পূর্বাভাসের বিষয়ে ব্যাংকের বিশেষজ্ঞরা মনে করেন যে 2017 সালের শেষে জিবিপি/ ইউএসডি (GBP/USD) মুদ্রাজুড়ি 1.26 –এর অঞ্চলে থাকবে।  

-এএনজেড ব্যাংক এবং এবিএন অ্যামরোর মুদ্রা কৌশলবিদরা মনে করেন যে পাউণ্ড ডলারের তুলনায় দুর্বল থাকবে, কিন্তু ইউরোর তুলনায় শক্তিশালী থাকবে। এবিএন অ্যামরোর বিশেষজ্ঞ জর্জেট বোয়েল বলেন, “এর কারণ হল ইউরো অঞ্চলে রাজনৈতিক অস্থিরতা ইউরোর উপর সব দিক দিয়েই চাপ রাখবে। আর্থিক বাজারে ব্রেক্সিটের আর কোন মুখ্য আকর্ষণ নেই, তাই পাউণ্ড তুলনামূলকভাবে স্থির থাকবে।”    

-রয়্যাল ব্যাংক অফ্ স্কটল্যাণ্ডের মতে ইইউএসডি/জেপিওয়াই (USD/JPY) মুদ্রাজুড়ি পুরো 2017 বছর ধরে 110-120-এর সীমায় থাকবে, ব্যাংক অফ্ জাপান আর্থিক নীতির স্থিতিমাপকগুলির স্থিতি বজায় রাখবে এবং 10–বছরের বন্ডে (JGB) আয় প্রায় শূন্যের কাছাকাছি রাখাই বজায় রাখবে। আইএইচএস মার্কিটের বিশেষজ্ঞদের মতে ডলারের শক্তিশালী হওয়ার কারণে, এই মুদ্রাজুড়ি 126–এর লক্ষ্যে পৌঁছাবে।

-নর্দএফএক্স-এর জন গর্ডন বলেন, "ট্রাম্পের প্রশাসনের কার্যকলাপ এবং ফেডের দ্বারা হারের বৃদ্ধির কারণে মুদ্রাস্ফীতির অর্গল খুলে যাবে এবং অনেক দেশের জাতীয় মুদ্রাকে দুর্বল করবে যেগুলি ইউএস ডলারের উপরে নির্ভরশীল।" আবার একই সময়ে ব্লুমবার্গের মতে, 2017 সালে আমরা উদীয়মান বাজারের প্রতি নজর রাখছি, রাশিয়ান রুবল বিনিয়োগকারীর জন্য যা খুবই আশাব্যঞ্জক বলে মনে হচ্ছে। ইউবিএস গ্রুপ এজির অনুমান অনুযায়ী, ক্যারী ট্রেড কৌশলে রুবলে বিনিয়োগে আয় 26% হবে বলে মনে করা হচ্ছে, এবং এই ফলাফল ইউরোপ, মধ্যপ্রাচ্য এবং আফ্রিকার বাজারের মধ্যে সর্বোত্তম হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

-ইইউএসএ-র কার্যকলাপের সাথে সংশ্লিষ্ট ঝুঁকির ক্ষেত্রে কম নির্ভরশীল আকর্ষণীয় দেশগুলির অর্ন্তগত হল মেক্সিকো, ব্রাজিল, চিলি, দক্ষিণ আফ্রিকা, ভারত এবং ইন্দোনেশিয়া।


« বাজার বিশ্লেষণ ও সংবাদ
প্রশিক্ষণ
গ্রহণ করুন
মার্কেটে নতুন? ব্যবহার করুন “শুরু করা যাক” বিভাগটি।
প্রশিক্ষণ শুরু করুন
প্রোমোশন এবং বোনাস
বিশেষ অফার এবং শর্তাবলী লাভজনক ট্রেডিং-এর জন্য।
আরও জানুন
আমাদের অনুসরণ করুন (সামাজিক নেটওয়ার্কগুলিতে)